default-image

রণবীর কাপুর এবারই প্রথম বাবা ঋষি কাপুরের ক্যানসার নিয়ে কথা বলেছেন। ঋষি কাপুর ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন। কিন্তু কী চিকিৎসা হচ্ছে, তা নিয়ে এত দিন টুঁ শব্দটি করেনি তাঁর পরিবারের কোনো সদস্য। কিন্তু সত্যকে অস্বীকার করলেই তো আর তা মিথ্যা হয়ে যায় না। তাই এখন একে একে পরিবারের সবাই ঋষি কাপুরের ক্যানসার নিয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন।

ঋষি কাপুরে ছেলে, বলিউডের এ সময়ের ব্যস্ততম তারকা রণবীর কাপুর জানান, সুস্থ আছেন ঋষি কাপুর। সেই সঙ্গে জানালেন একটি সুখবর। দীর্ঘ ১০ মাসের চিকিৎসা শেষে শিগগিরই মুম্বাইয়ে নিজের ঘরে ফিরে আসবেন ঋষি কাপুর। এ সময় রণবীর কাপুর বলেন, ‘বাবা প্রতিদিন উন্নতি করছেন। আমরা আশা করি, তিনি দুই বা এক মাসের মধ্যেই ফিরে আসবেন। তিনি হারানো আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন। নিজের ব্যাপারে খুবই আশাবাদী। বছরটা তাঁর জন্য খুব কঠিন যাচ্ছে। তবে তিনি দুঃসময় কাটিয়ে উঠছেন।’

রণবীর কাপুর জানালেন, এখন ঋষি কাপুরের একটাই লক্ষ্য, আবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করবেন।

default-image

চলচ্চিত্র নির্মাতা রাহুল রাওয়াল এ মাসের গোড়ার দিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানান, ঋষি কাপুর ক্যানসারমুক্ত। তখন প্রথম জানা গেল, ইরফান খান ও সোনালি বেন্দ্রের পর ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছেন ৬৬ বছর বয়সী ঋষি কাপুর। এরপর তাঁর বড় ভাই রণধীর কাপুর জানান, ভালো আছেন ঋষি কাপুর। বেশ উন্নতি করেছেন এবং চিকিৎসা শেষ করে দ্রুত দেশে ফিরে আসবেন।

গত জানুয়ারি মাসে বলিউড হাঙ্গামাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলিউডের বরেণ্য তারকা ঋষি কাপুর নিজের অসুস্থতা নিয়ে বলেন, ‘পুরো ব্যাপারটা একটা দীর্ঘ প্রক্রিয়া। আর তা খুবই ক্লান্তিকর। এর জন্য প্রয়োজন অসীম ধৈর্য। সত্যি বলতে, আমার খুব কষ্ট হচ্ছে।’ তবে অসুখটা কী, তা নিয়ে তখন কিছুই বলেননি তিনি।

রাজ কাপুরের বিখ্যাত আরকে স্টুডিও সম্প্রতি গোডরেজ প্রপার্টিজ নামের একটি আবাসন প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে দেয় কাপুর পরিবার। রাজ কাপুরের স্মৃতিবিজড়িত স্থানটিতে তাঁর নামে জাদুঘর নির্মাণের কথা ছিল। কিন্তু তা না করে সেখানে এখন বিলাসবহুল বহুতল আবাসন হবে। এ ব্যাপারে রণবীর কাপুর বলেন, ‘আমার দাদা রাজ কাপুরের জন্যই আরকে স্টুডিও হয়ে উঠতে পেরেছিল। স্টুডিওটি যেখানে ছিল, সেখানে আর থাকবে না; তাই অনেকেরই মন খারাপ হচ্ছে। আরকে স্টুডিও শুধু সম্পত্তি নয়, বরং এটা শক্তি আর অনুপ্রেরণা। আমি এই ধারাবাহিকতা চলচ্চিত্র প্রযোজনা আর চলচ্চিত্র নির্মাণের মধ্য দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’ ‘প্যানাসনিক ক্রিকেট দিন সে’ আয়োজিত এক ইভেন্টে রণবীর কাপুর এই কথাগুলো বলেন।

default-image

রণবীর কাপুরের আগে চাচাতো বোন কারিনা কাপুর বলেন, ‘আমি আর কারিশমা রাজ কাপুরের সম্পত্তি। রণবীর কাপুর সেই যাত্রায় নতুন সংযোজন। আমরা আমাদের কাজ দিয়ে রাজ কাপুরের ধারাবাহিকতা এগিয়ে নিয়ে যাব। এরপর আমাদের সন্তানেরা তা এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

এদিকে ১২ মে রণবীরের সাবেক প্রেমিকা দীপিকা পাড়ুকোন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে মেট গালায় অংশগ্রহণ শেষে ঋষি কাপুরকে দেখতে যান। সেখানে তিনি সময় কাটান। নীতু কাপুর আবার সেই সময়ের একটা ছবি শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রামে। ছবিতে হাস্যোজ্জ্বল নীতু কাপুর আর দীপিকা পাড়ুকোনের মাঝখানে মুখে স্মিত হাসিতে দেখা যায় ঋষি কাপুরকে। নীতু কাপুর ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আদরের দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে চমৎকার সন্ধ্যা কেটেছে। ও আমাদের অনেক ভালোবাসা আর আনন্দ দিয়েছে।’

২০০৮ সালে ‘বাঁচনা অ্যায় হাসিনো’ ছবির শুটিংয়ের সময় দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর কাপুর একে অপরের কাছে আসেন। রণবীর কাপুর আর দীপিকা পাড়ুকোন যখন একসঙ্গে ছিলেন, তখন সেটিই ছিল বলিউডের সেরা জুটি। বলিউডের এই দুই তারকা কখনো তাঁদের প্রেমের কথা লুকানোর চেষ্টা পর্যন্ত করেননি। দীপিকা রণবীরকে এতটাই ভালোবাসতেন যে তাঁর নামের ঘাড়ে ট্যাটু এঁকেছিলেন। এরপর তাঁদের প্রেম যখন ভেঙে যায়, তখন সেটা ছিল বলিউডের সবচেয়ে দুঃখজনক ঘটনা। দীপিকা তখন এতটাই ভেঙে পড়েছিলেন যে দীর্ঘদিন তাঁকে হতাশা থেকে মুক্তির চিকিৎসা নিতে হয়েছে। তখন শোনা গেছে, দীপিকা পাড়ুকোনের ব্যাপারে রণবীরের মা নীতু কাপুরের আপত্তি ছিল। এ কারণেই তাঁদের সম্পর্ক ভেঙে যায়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0