ক্যারিয়ারের সেরা সময় পার করছেন পূজা হেগড়ে। কাজ করছেন সালমান খান, প্রভাস, রণবীর সিংদের সঙ্গে। ২০১৯ সালে ‘মহর্ষি’ সিনেমায় তিনি পর্দায় দেখা দিয়েছিলেন দক্ষিণি তারকা মহেশ বাবুর সঙ্গে। ভারতের ৬৭তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ঘোষণায় ‘মহর্ষি’র নাম উচ্চারিত হয়েছে দুবার। ‘সামগ্রিক বিনোদনে সেরা জনপ্রিয় সিনেমা’ আর ‘সেরা ড্যান্স কোরিওগ্রাফি’।

default-image

সেই সুখবর ভক্তদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়ে পূজা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘আমি কীভাবে শান্ত থাকব? আমি চিৎকার করে জানান দিতে চাই যে আমাদের সিনেমা দু–দুটো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে। আমি যে কী খুশি! “মহর্ষি” দলের সবাইকে আমার টুপিখোলা অভিবাদন।’

default-image

এদিকে শোনা যাচ্ছে, ‘মাস্টার’–এর অভাবনীয় সাফল্যের পর থালাপতি বিজয়ের পরের ছবি নিয়েও সবার আগ্রহ তুঙ্গে। এটি বিজয়ের ৬৫তম সিনেমা। তাই নাম ঠিক না হওয়া এই সিনেমাকে বলা হচ্ছে ‘থালাপতি ৬৫’। এই সিনেমার নায়িকার দৌড়েও এগিয়ে আছেন পূজা।

default-image
বিজ্ঞাপন

তবে দক্ষিণ ভারতীয় সুপারস্টার বিজয়ের নায়িকা হতে এতটুকু ছাড় দিচ্ছেন না পূজা। এই ছবির জন্য তিনি ৪ কোটি ৯ লাখ টাকা পারিশ্রমিক চেয়েছেন। তামিল সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি কলিউডে এই টাকার অঙ্ক যেকোনো নায়িকার জন্য অনেক বড় ব্যাপার।

default-image

বাণিজ্য বিশ্লেষক রমেশ রাজা বলিউড লাইফকে বলেন, ‘এখনো বলা যাচ্ছে না “থালাপতি ৬৫”–এ কে হবেন বিজয়ের নায়িকা! পূজা বুঝেশুনে পা ফেলতে চাইছেন। অন্যদিকে প্রযোজকদের জন্য চার কোটি একটা বড় সংখ্যা। রাশমিকা মান্দানা বা কিয়ারা আদভানিকেও দেখা যেতে পারে। এপ্রিলে ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা। দেখা যাক, শেষ হাসি কে হাসলেন। তবে চার কোটি টাকা খরচ করে যদি প্রযোজকেরা পূজাকে নেন, তাহলে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।’

default-image


বলিউড আর দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমা—বড় পর্দার দুনিয়ায় পায়ের নিচে মাটি শক্ত করে ফেলেছেন পূজা। নিজের সফলতা তিনি ৩০ বছর বয়সী পূজা বলেন, ‘পেশাগত দিক দিয়ে এখন আমি এক দারুণ সময়ে আছি। এত দিন আমি যা যা করতে চেয়েছি, এখন তার সবই করছি। এত দিন যাঁদের সঙ্গে কাজ করতে চেয়েছি, এই মুহূর্তে তাঁদের সবার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। স্বপ্নের নায়কেরাই আজ আমার বাস্তবের নায়ক। মনে হচ্ছে পরিশ্রমের ফল পাচ্ছি।’

default-image

২০১০ সালে মিস ইউনিভার্স ইন্ডিয়ার মঞ্চে সেকেন্ড রানার আপের মুকুট উঠেছিল পূজার মাথায়। তার দুই বছর পর থেকেই শুরু। খাতা খুললেন তামিল সুপারহিট সিনেমা ‘মুগামোদি’ দিয়ে। নাগা চৈতন্যের সঙ্গে ‘ওকা লায়লা কোসাম’ সিনেমা দিয়ে পা রাখেন তেলেগু সিনেমাপাড়ায়। আর বলিউডে অভিষেক হয় হৃতিক রোশনকে সঙ্গী করে, ‘মাহেঞ্জোদারো’ সিনেমায়।

default-image

এই মুহূর্তে বিশাল বাজেটের অন্তত পাঁচটি ছবিতে নাম লিখিয়েছেন পূজা। সালমান খানের ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’, আাখিল আক্কিনেনির সঙ্গে ‘মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর’, প্রভাসের বিপরীতে ‘রাধে শ্যাম’, রোহিত শেঠির পরিচালনায় রণবীর সিংয়ের সঙ্গে ‘সার্কাস’ আর চিরঞ্জীবী, কাজল আগারওয়াল আর রাম চরণের সঙ্গে ‘আচার্য’।

default-image
বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন