default-image

মিঠুন চক্রবর্তী করোনায় আক্রান্ত! এমন খবর ঘুরছে ভারতীয় গণমাধ্যমে। এই মুহূর্তে তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। বাড়িতেই চলছে চিকিৎসা। তবে অন্য একটি সংবাদমাধ্যমের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বলা হচ্ছে, এই অভিনেতার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরটি সঠিক নয়।

বেশ কয়েকটি ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এই অভিনেতা। এই আশঙ্কা আগে থেকেই করা হচ্ছিল। কারণ ভারতজুড়ে এখন করোনা সংক্রমণ মারাত্মক আকারে বাড়ছে। বিভিন্ন রাজ্যে চলছে অক্সিজেন সংকট। সেখানে পশ্চিমবঙ্গে চলছে জনসমাবেশ করে নির্বাচনী প্রচারণা।

বিজ্ঞাপন
default-image

ভারতীয় ওই প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছে, গত মাস থেকেই পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে বিজেপি দলের হয়ে প্রচারে মাঠে নেমেছিলেন মিঠুন চক্রবর্তী। প্রায় পুরো পশ্চিমবঙ্গ ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন এই অভিনেতা। অংশগ্রহণ করেন জনসভায় ও নির্বাচনী মিছিলে। আর সেই প্রত্যেক প্রচারসভাতেই প্রিয় অভিনেতাকে স্বচক্ষে একনজর দেখার জন্য মানুষের ঢল নামে। শুধু তা-ই নয়, এমনভাবে জনসমাগম এই সময়ে ক্ষতিকর। কয়েক দিন আগে দক্ষিণ দিনাজপুরের একটি জনসভায় অতিরিক্ত জনসমাগমের কারণে মিঠুনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন।

সেখানে যেমন তিনি মঞ্চের ওপর বক্তৃতা করেছেন, তেমনি প্রচার গাড়িতে বসে প্রচারণা করেছেন। তাঁকে ঘিরে ভক্তদের উচ্ছ্বাসও ছিল বাঁধভাঙা। তাদের সেলফি তোলার আবদারও ফেলেননি এই অভিনেতা। অনেকের ধারণা, সম্ভবত এখান থেকেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি করোনা সতর্কবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। মালদহের তৃণমূলের যুব কংগ্রেসের সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস নির্বাচন কমিশনের কাছে মিঠুনের নামে অভিযোগও দায়ের করেছেন।

default-image

কিন্তু ভারতীয় চলচ্চিত্র ও লাইফ স্টাইল সাময়িকী ফিল্মফেয়ার টুইট করে জানিয়েছে, মিঠুন চক্রবর্তীর এই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর সঠিক নয়। তিনি সুস্থ আছেন। তার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার গুজব নিয়ে মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, ‘এক মাস নির্বাচনী প্রচারের পর আমি এখন ছুটি কাটাচ্ছি। মজা করে বেউলির ডাল আর আলু পোস্ত খাচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন