default-image

৩৩ বছর আগে লন্ডনের লর্ডসে ২৫ জুন তারিখটি এখনো ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসের উজ্জ্বলতম দিন হয়ে আছে। সেদিন কপিল দেবের নেতৃত্বে বিশ্বকাপ ক্রিকেট জিতেছে ভারত। আর সেই মুহূর্তকে সেলুলয়েডের পর্দায় তুলে ধরে আরও একবার প্রথম বিশ্বকাপ জয়কে উদ্‌যাপন করতে শুটিং শুরু করেছেন পরিচালক কবির খান। ছবির নাম ‘এইটি থ্রি’।

পর্দায় ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেট দলের অধিনায়কের ভূমিকায় দেখা যাবে রণবীর সিংকে। অর্থাৎ পর্দায় কপিল দেব হবেন ‘পদ্মাবত’ ছবির আলাউদ্দিন খিলজি। কপিল দেব হওয়ার জন্য রণবীর সিং চেষ্টার কোনো ত্রুটি রাখেননি। কিন্তু কপিল দেবের মতো স্বতন্ত্র ভঙ্গিতে বল করার পদ্ধতি রপ্ত করা তো আর চাট্টিখানি কথা নয়। তা অকপটে স্বীকার করলেন রণবীর সিং। একাধিকবার জানিয়েছেন, ব্যাটিং পারছেন, কিন্তু বোলিং পারছেন না। এত প্রস্তুতি নিয়েও নাকি কপিল দেবের মতো বল করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেক চেষ্টা করেও না।

রণবীর আরও বলেছেন, তাঁর শরীরের গঠন কপিল দেবের মতো বল করার উপযোগী নয়। তাই শরীরের কাঠামো পরিবর্তন করার জন্য তিনি কঠোর শারীরিক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। তবুও হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে রণবীর বলেছেন, ‘এই ছবির সবচেয়ে কঠিন অংশ কপিল দেবের মতো বল করা।’

default-image

এর আগে কপিল দেবের কাছে কপিল দেব হওয়ার প্রশিক্ষণ নিয়েছেন রণবীর সিং। ধর্মশালায় ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ দলের কাছ থেকে পর্দার ‘বিশ্বকাপ দল’ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রশিক্ষণ নিয়েছে। তারপরও একাধিকবার কপিল দেবের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে সাক্ষাৎ করেছেন। ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ে কপিল দেবের পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল মহিন্দর অমরনাথের। ব্যাটিং আর বোলিংয়ে অসামান্য অবদানের জন্য তিনি ফাইনালের ম্যান অব দ্য ম্যাচের ট্রফি পেয়েছিলেন। পর্দায় সেই মহিন্দর অমরনাথ হবেন সাকিব সালিম।

তা ছাড়া তাহির রাজ বশিরকে সুনীল গাভাস্কার, অ্যামি ভার্ককে বলবিন্দর সাধু, সহিল খাট্টারকে সৈয়দ কিরমানি, চিরাগ পাতিলকে সন্দ্বীপ পাতিল, আদিনাথ কোঠারেকে দিলীপ ভেংসরকার, ধাইরইয়া কারওয়াকে রবি শাস্ত্রী, দিনকার শর্মাকে কৃতি আজাদ, যতীন শর্মাকে যশপাল শর্মা, হার্ডি সাধুকে মদন লাল, নিশান্ত দাহিয়াকে রজার বিনি এবং আর বদ্রিকে দেখা যাবে সুনীল ভালসনের ভূমিকায়। বড় পর্দায় কোচ পি আর মান সিং হবেন পঙ্কজ ত্রিপাঠী।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে ৫ জুন থেকে ছবির শুটিং শুরু হবে। আর ২০২০ সালের ১০ এপ্রিল ছবিটি মুক্তি দেওয়ার কথা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন