বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

সোনাল এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘“আদিপুরুষ” ছবির অংশ হতে পেরে আমি অত্যন্ত রোমাঞ্চিত। আজ অবধি আমি যত ছবিতে কাজ করেছি, তার চেয়ে একদম আলাদা এই ছবি। আমার পুরোপুরি বিশ্বাস যে আদিপুরুষ ছবিটিকে দর্শক দারুণ উপভোগ করবেন।’ জান্নাত ছবির পর সোনালকে বেশ কিছু দক্ষিণি ও হিন্দি প্রকল্পে দেখা গেছে।
এ বছরই সোনালের ঝুলিতে আরেকটি বড় ছবি এসেছে। তাঁকে দক্ষিণি সুপারস্টার নাগার্জুনের সঙ্গে দ্য ঘোস্ট ছবিতে দেখা যাবে। উচ্চমানের এই অ্যাকশনধর্মী ছবিতে প্রথমে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের অভিনয় করার কথা ছিল।

default-image

পরে তাঁর পরিবর্তে সোনালকে নেওয়া হয়েছে। তাই সব মিলিয়ে এখন একটু সুখের মুখ দেখেছেন তিনি। তবে সোনাল মনে করেন যে বিটাউনে একজন পথনির্দেশক থাকা প্রয়োজন। এক সাক্ষাৎকারে এই নবীন তারকা বলেছিলেন, ‘“জান্নাত” ছবির পর আমি মানুষের প্রচুর ভালোবাসা পেয়েছি। এখনো আমাকে অনেকে এই ছবির চরিত্রের নাম “জোয়া” হিসেবে মনে রেখেছেন। কিন্তু এই ছবির পর আমি যেন পথ হারিয়ে ফেলি। আসলে বলিউডে আমাকে পথ দেখানোর মতো কেউ ছিলেন না। আর তাই আমি সেই সফলতা পাইনি। আসলে আমি এক এমন দুনিয়া থেকে এসেছি, যার সঙ্গে বলিউডের কোনো সংযোগ ছিল না। আমার মা–বাবা শুধু আমার পড়াশোনা নিয়ে ভাবতেন।’

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন