প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
প্রিয়াঙ্কা চোপড়াছবি: ফেসবুক থেকে

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া খেতে খুবই ভালোবাসেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বউ হয়ে এসে সবই ঠিক আছে, তবে তিনি ভারতের খাবার খুবই মিস করছেন। স্বামী নিক জোনাস নাকি প্রিয়াঙ্কার চেয়ে ঢের ভালো রাঁধেন। লকডাউনে স্ত্রীকে রেঁধে খাইয়ে তাঁর মন জয় করেছেন। প্রিয়াঙ্কা নিককে দিয়ে ভারতীয় রান্নার কোর্স করানোর ইচ্ছার কথাও প্রকাশ করেছেন। সেই আইডিয়া বোধ হয় মনে ধরেনি নিকের। তাই প্রিয়াঙ্কা নিজেই উদ্বোধন করলেন রেস্তোরাঁ। নিউইয়র্কের রাস্তায় ভারতীয় ওই খাবারের দোকানের নাম দিয়েছেন ‘সোনা’।

default-image

টুইটারে নিজের রেস্তোরাঁর তিনটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আমি আপনাদেরকে “সোনা”র সঙ্গে পরিচিত করাতে পেরে খুবই উচ্ছ্বসিত। “সোনা” নিউইয়র্কের একটা নয়া রেস্তোরাঁ। এটাকে কেবল রেস্তোরাঁ ভেবে ভুল করবেন না, এটা ভারতীয় খাবারের প্রতি আমার ভালোবাসা, আমার আবেগ। যেসব খাবারের ঘ্রাণ নিয়ে আমি বড় হয়েছি, সেগুলো আপনারা এখানে পাবেন।

বিজ্ঞাপন

ভারতের ঐতিহ্যবাহী খাবারের স্বাদ নেওয়া যাবে এখানে। মার্চের শেষ থেকেই এখানকার খাবার চেখে দেখতে পারবেন। সেরা রাঁধুনিরা রান্না করবেন ভারতীয় সব মজাদার পদ। অন্দরসজ্জাও হয়েছে বিশ্বের সেরা ডিজাইনারদের দিয়ে। এখানে আপনাদের সঙ্গে খাবার ভাগ করে নেওয়ার জন্য তর সইছে না আমার।’

default-image


২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর থেকে চলছে এই রেস্তোরাঁর কাজ। রেস্তোরাঁ তৈরিতে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গী হয়েছেন নিক। সেই সময়ের দুটি ছবি আর রেস্তোরাঁর নামের ছবি দিয়ে জানালেন সুখবর। শিগগিরই চালু হতে চলেছে ‘সোনা’। তবে আপাতত ‘সোনা’তে গিয়ে পাওয়া যাবে না প্রিয়াঙ্কাকে। কেননা, এই মুহূর্তে তিনি ‘ম্যাট্রিক্স ফোর’–এর শুটিংয়ে ব্যস্ত। নিউইয়র্কের শুটিং শেষ করে উড়াল দেবেন লন্ডনে। সেখানে হবে বাকি অংশের শুটিং। সম্প্রতি ব্রিটিশ একাডেমি অব ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন আর্টস (বাফটা) অ্যাওয়ার্ডসের মনোনয়ন পেয়েছেন ভারতীয় অভিনেতা আদর্শ গৌরব। ‘দ্য হোয়াইট টাইগার’ নামের ওই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও। এই ছবির অন্যতম প্রযোজকও তিনি।

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন