বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তাহিরা বলেন, একটি রেস্তোরাঁয় দুপুরের খাবার শেষে ছেলেকে রেখেই রওনা হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। ঘটনাটি ঘটে তাঁর প্রথম সন্তান বিরাজবীর পৃথিবীতে আসার পরপরই। মা হওয়ার পর এক বন্ধুর সঙ্গে প্রথমবার রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়েছিলেন তাহিরা। ‘খেতে বসে বাচ্চার কথা ভুলে যাই। আমি ব্যাগ কিংবা বিলের কথা ভুলিনি, কিন্তু বাচ্চার কথাই ভুলে গিয়েছিলাম। বেরিয়ে আসার পর ওয়েটার আমার কাছে ছুটে আসে। বলে, “ম্যাডাম, আপনার বাচ্চার কথা ভুলে গেছেন।” আমি খুবই অপ্রস্তুত বোধ করি। সবাই আমার দিকে তাকিয়ে ছিল।’

default-image

এখানেই শেষ না, কখনো কখনো ছুটির দিনেও বাচ্চাদের নিয়ে স্কুলে হাজির হয়েছেন এই ভুলোমনা মা। তাহিরা বলেন, ‘আমি এগুলো করেছি। সরকারি ছুটির দিনে বাচ্চাদের স্কুলে দিয়ে এসেছি। এই ভুলগুলো যে এখনো হয় না, এমন না। তবে এখন আমি আমার প্রতি অনেক বেশি ক্ষমাশীল। আমার অসুস্থতার সময় আমার মা যখন বাচ্চাদের দেখভাল করতেন, তখন তিনি বাচ্চাদের টিফিন দিলে আমি চিন্তায় পড়ে যেতাম। পরপর দুই দিন তিনি ওদের পনির স্যান্ডউইচ দিয়েছিলেন। কী অস্বাস্থ্যকর! কিন্তু এখন ভাবি, কী আর হবে? এখন আমি ছাড় দেওয়া শিখতে শুরু করেছি।’

default-image

লেখক ও নির্মাতা হিসেবে বলিউডে পরিচিত তাহিরা কাশ্যপ খুরানা। তাঁর নতুন বই দ্য সেভেন সিনস অব বিয়িং আ মাদার সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। তাঁদের দুজনের ঘরে আছে দুই সন্তান—বিরাজবীর ও বারুশকা।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন