default-image

করোনার কারণে বহুদিন ধরে স্তব্ধ হয়ে ছিল বলিউডের সাম্রাজ্য। তবে আবার ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে চাইছে এই ইন্ডাস্ট্রি। জনপ্রিয় পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালি তাঁর আগামী ছবি ‘গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি’র শুটিং শুরু করতে চলেছেন। এই ছবির জন্য তিনি মুম্বাইয়ে ফিল্মসিটির বুকে এক বিশালাকার, দামি সেট বানিয়েছিলেন। তবে সেটটির অবস্থা করুণ। এই ছবির মূল চরিত্রে দেখা যাবে বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাটকে। তবে করোনার কারণে বানসালি চিত্রনাট্যে বদল আনতে চলেছেন।

default-image

লকডাউনের কারণে সব রকম প্রস্তুতি নিয়েও ‘গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি’ ছবির শুটিং শুরু করতে পারেননি বানসালি। শোনা যাচ্ছে, এবার শুটিং করতে তৎপর এই চিত্রনির্মাতা। তবে তার আগে তিনি নাকি ছবির চিত্রনাট্য বদলের দিকে মন দিচ্ছেন। মহামারির কারণে অনেক নিয়মানুবর্তিতার সঙ্গে শুটিং করতে হবে। সেটে মহারাষ্ট্র সরকারের সব রকম নিয়ম মেনে চলতে হবে। শুটিং সেটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। ছবি বা ধারাবাহিকের অভিনয়শিল্পীদের জন্য একই নিয়ম প্রযোজ্য। তাই বানসালির এই ছবিতে সব প্রেমের এবং অন্তরঙ্গ দৃশ্য বাদ দিতে হবে। তবে ছবির নায়ক-নায়িকার মধ্যে শারীরিক ঘনিষ্ঠতা দেখানোর জন্য নতুন কোনো পদ্ধতি অবলম্বন করা হতে পারে। কিন্তু বানসালি আলিয়ার সঙ্গে তাঁর প্রেমিকের ঘনিষ্ঠ দৃশ্যগুলো বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

default-image

বানসালির ‘গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি’ ছবিতে আলিয়াকে এক ব্যতিক্রমী চরিত্রে দেখা যাবে। এই ছবিতে তিনি অভিনয় করবেন মুম্বাইয়ের কামতাপুর এলাকার কুখ্যাত এক যৌনকর্মীর চরিত্রে। তাঁর বিপরীতে দেখা যাবে নবাগত অভিনেতা শান্তনু মহেশ্বরীকে। তবে দুর্দান্ত ড্যান্সার এবং কোরিওগ্রাফার হিসেবে শান্তনুর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। বানসালির এই ছবিটি লেখক হুসেন জায়দীর বই ‘মাফিয়া কুইন্স অব মুম্বাই’ থেকে নির্মিত।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন