বলিউডে এমন তারকা আছেন, যাঁরা কখনো তাঁদের শরীরে দোলের রং মাখেননি, এই উৎসব থেকে সব সময় দূরে থাকেন তাঁরা
বলিউডে এমন তারকা আছেন, যাঁরা কখনো তাঁদের শরীরে দোলের রং মাখেননি, এই উৎসব থেকে সব সময় দূরে থাকেন তাঁরা

প্রতিবছর দোলের রঙে রঙিন হয়ে ওঠে বলিউড। লাল, হলুদ, সবুজ, নীল নানান রঙের উৎসবে নতুন সাজে সেজে ওঠে বলিউড। অনেক বলিউড তারকার বাসায় দোল উপলক্ষে জমকালো পার্টির আয়োজন করা হয়। তবে এ বছর ছিল ব্যতিক্রম, করোনার কারণে অত্যন্ত সাদামাটাভাবে বিটাউনে উদ্‌যাপন করা হলো দোল উৎসব।
অমিতাভ বচ্চন, হৃতিক রোশন, তাপসী পান্নু, সঞ্জয় দত্ত, প্রীতি জিনতা, দিয়া মির্জা, কঙ্গনা রনৌত, শিল্পা শেঠি, অনুপম খেরসহ আরও অনেক বলিউড তারকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সবাইকে দোলের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।
বলিউডে এমন তারকা আছেন, যাঁরা কখনো তাঁদের শরীরে দোলের রং মাখেননি। এই উৎসব থেকে সব সময় দূরে থাকেন তাঁরা। একনজরে দেখে নেওয়া যাক এসব বিটাউন তারকাকে।

default-image

কারিনা কাপুর খান
কারিনা কাপুরের দাদা রাজ কাপুর শুরু করেছিলেন বলিউডে হোলি পার্টির ট্রেন্ড। আরকে স্টুডিওতে তিনি হোলি উপলক্ষে এক রঙিন পার্টির আয়োজন করতেন। বিটাউনের প্রায় সব তারকা সপরিবারে এই পার্টিতে শামিল হতেন। রাজ কাপুর মারা যাওয়ার পর এই পার্টির আয়োজন কাপুর পরিবার বন্ধ করে দেয়। কারিনা কাপুর খানের বক্তব্য, দোলের সব রং দাদাজির সঙ্গে চলে গেছে। তাই তিনি আর কোনো দোল উৎসব শামিল হন না। এমনকি কাপুর পরিবারের অন্য সদস্যরা দোল খেলেন না।

বিজ্ঞাপন

রণবীর কাপুর পারিবারিক হোলি উৎসব থেকে ছোট থেকেই দূরে থাকতেন। তবে তাঁকে ‘ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’ ছবিতে জমিয়ে রং খেলতে দেখা গেছে। এই ছবির ‘বলম পিচকারি’ গানেতে দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে রঙের নেশায় মেতে উঠেছিলেন রণবীর। কিন্তু এই হোলির দৃশ্যটি শুট করতে নাজেহাল হয়েছিলেন এই বলিউড তারকা। শুটিংয়ের পর তাঁর অবস্থা খারাপ হয়ে গিয়েছিল।

default-image

রণবীর সিং
পর্দায় জমিয়ে হোলি খেলতে দেখা যায় বলিউড সুপারস্টার রণবীর সিংকে। সঞ্জয় লীলা বানসালি পরিচালিত ‘পদ্মাবত’, ‘গলিয়োঁ কি রাসলীলা রামলীলা’ ছবিতে তাঁকে দোলের রঙে রঙিন হতে দেখা গেছে। তবে ব্যক্তিগত জীবনে মোটেও রং খেলতে পছন্দ করেন না তিনি। রং খেলার পর রং তোলার ভয়ে এই উৎসব থেকে দূরে থাকেন রণবীর।

default-image

কৃতি শ্যনন
দিল্লিতে নিজের পরিবারের সঙ্গে একসময় জমিয়ে রং খেলতেন কৃতি। কিন্তু মুম্বাই আসার পর রং থেকে দূরে থাকেন তিনি। কারণ, কৃতির ভয় যে রং তাঁর ত্বকের কোনোভাবে ক্ষতি না করে।

করণ জোহর
বলিউডের নামজাদা চিত্র নির্মাতা তথা পরিচালক করণ জোহর কোনো দোল উৎসবে শামিল হন না। আর এর মূলে রয়েছেন বলিউড নায়ক অভিষেক বচ্চন। অভিষেকের কারণে একদম রং খেলেন না করণ। প্রতিবছর বচ্চন পরিবার হোলি পার্টির আয়োজন করে।

default-image

ছোটবেলায় একবার অভিষেকের বাসায় হোলির পার্টিতে গিয়েছিলেন এই চিত্র নির্মাতা। তখন তার ১০ বছর বয়স। ছোটবেলা থেকেই রং খেলতে পছন্দ করতেন না করণ। বচ্চন পরিবারের পার্টিতে পা রাখা মাত্রই তাকে রংভরা পুলে ধাক্কা মেরে ফেলে দেন অভিষেক। ১০ বছর বয়সের সেই ঘটনার রেশ আজও তাঁর জীবনে আছে। তাই আজও হোলি খেলেন না করণ।

বিজ্ঞাপন

তাপসী পান্নু
মা–বাবার কারণে কখনো হোলি খেলার সুযোগ তাপসী পান্নুর হয়নি। কারণ, তাঁর মা–বাবা রং খেলতে একদম পছন্দ করতেন না। দোল উৎসবের সময় মা–বাবার সঙ্গে হোটেলে থাকতেন তাপসী।

default-image

জন আব্রাহাম
বলিউড তারকা জন আব্রাহামের হোলি না খেলার পেছনে অন্য কারণ আছে। তাঁর মতে, হোলি রঙে প্রকৃতির ক্ষতি হয়। এক সাক্ষাৎকারে এই বলিউড নায়ক বলেছিলেন, ‘আমি হোলি উৎসব উদ্‌যাপন করি না। মানুষ এই উৎসবের অপব্যবহার করছে। তাই আমি এই উৎসবের সম্মান করি না।’


আথিয়া শেঠি
প্রকৃতি সংরক্ষণের কথা ভেবে বলিউড নায়িকা আথিয়া শেঠি হোলি খেলেন না। এই নায়িকার কথায়, ‘হোলির রং মানুষের পাশাপাশি জীবজন্তুদের ক্ষতি করে।’

default-image

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ
বলিউডের নায়িকা জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের রঙের সঙ্গে খুব একটা সম্পর্ক নেই। কারণ, শ্রীলঙ্কায় তাঁর বেড়ে ওঠা। এখানে দোল উৎসব পালন করা হয় না। তাই কৈশোরে বা যৌবনে জ্যাকুলিনের রং খেলা হয়নি।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন