রণবীরের এক বিশেষ দল বিয়ের খুঁটিনাটির প্রতি নজর রেখেছিল। বিয়ের দিন রণবীরের পরনে ছিল অফ হোয়াইটের ওপর সোনালি কাজের শেরওয়ানি আর পাঞ্জাবি। মাথায় বেঁধেছিলেন পাগড়ি। এদিন তাঁর হাতে এক ঘড়ি দেখা গিয়েছিল। এই ঘড়িটি সবার নজর কেড়েছিল। জানা যায়, ঘড়িটি প্রয়াত বরেণ্য অভিনেতা ঋষি কাপুরের।

default-image

বিশেষ ঘড়িটির ব্যান্ড নীল কুমিরের চামড়া দিয়ে নির্মিত। আর ১৮ ক্যারেট সাদা সোনা দিয়ে ঘড়িটি বানানো হয়েছে। জানা যায়, ঘড়িটির দাম ২১ লাখ রুপি। ঋষি কাপুর এক আবেগঘন মুহূর্তে রণবীরকে এই বিশেষ ঘড়িটি দিয়েছিলেন। আর তাই রণবীর বিয়ের দিন বাবার দেওয়া বহুমূল্য ঘড়িটি পরে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন।

default-image

আলিয়ার বিয়ের সাজ পোশাকে অনেক কিছু বিশেষ ছিল। এই বলিউড নায়িকার পোশাক তাঁর আর রণবীরের সম্পর্কের কিছু কথা তুলে ধরেছে। তাঁর মঙ্গলসূত্রে ছিল রণবীরের লাকি সংখ্যা ‘৮’। আর তাঁর মাথার ভেলে লেখা ছিল বিয়ের দিন। আলিয়া বিয়ের দিন পরেছিলেন রণবীরের সঙ্গে ম্যাচিং করা পোশাক। এদিন তাঁর পরনে ছিল অফ হোয়াইটের ওপর সোনালি কাজ করা শাড়ি ও ব্লাউজ। আর আলিয়া এক পিঠ খোলা চুলের ওপর একই রঙের ভেল পরেছিলেন। তাঁর বিয়ের পোশাক ডিজাইন করেছিলেন খ্যাতনামা বাঙালি ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়।

default-image

বিয়ের পর আলিয়া আর রণবীর এখন মিস্টার এবং মিসেস কাপুর। কিন্তু আলিয়ার ভারতীয় নাগরিকত্ব নেই, তা অনেকেরই হয়তো জানা। এই বলিউড অভিনেত্রীর জন্ম লন্ডনে হয়েছিল। আর তার পর থেকে তাঁর কাছে ব্রিটিশ পাসপোর্ট আছে। শাশুড়ি মা নীতু কাপুরের মতো আলিয়া তাঁর নামের সঙ্গে পদবি হিসেবে ‘কাপুর’ জুড়বেন কি না, তা এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে এক দৈনিক সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী আলিয়া বিয়ের পরও ব্রিটিশ নাগরিক থাকবেন।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন