default-image

ভারতে ১৪ লাখেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৩২ হাজারের বেশি মানুষ। বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত দেশগুলোর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পরেই ভারতের অবস্থান। পরিস্থিতি বিবেচনায় সে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউন চলছে। যখন সে দেশের পুলিশ ও প্রশাসন পরিস্থিতি সামাল দিতে নাকানিচুবানি খাচ্ছে, তখনই ফ্ল্যাটে জুয়ার আসর বসিয়েছিলেন জনপ্রিয় তামিল চিত্রনায়ক শাম। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে চেন্নাই পুলিশ হানা দিয়ে জুয়ার আসর থেকে জনপ্রিয় অভিনেতা শামসহ আরও ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

default-image

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির অনলাইন সংস্করণ সূত্রে জানা গেছে, লকডাউন পর্বে তামিলনাড়ুজুড়ে জুয়ার রমরমা ব্যবসা শুরু হয়েছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই পুলিশের কাছে অভিযোগ জমা পড়ছিল। বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে পুলিশ ব্যবস্থাও নিয়েছিল। কিন্তু তাতেও জুয়ার আসর পুরোপুরি নির্মূল করা যায়নি। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, লকডাউনের ভেতর নাঙ্গামবক্কমের ফ্ল্যাটে নিয়মিত জুয়ার আসর বসাতেন দক্ষিণের অভিনেতা শাম। ওই জুয়ার আসরে তামিল চলচ্চিত্রজগতের সঙ্গে যুক্ত প্রচুর অভিনেতা-পরিচালকও যোগ দিতেন। এই খবর পেয়েই সেখানে হানা দেয় চেন্নাই পুলিশের একটি দল। সেখান থেকেই তথ্য-প্রমাণসহ গ্রেপ্তার করা হয় শামসহ ১৩ জনকে। গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে ছিলেন বেশ কয়েকজন নতুন পরিচালক, বেসরকারি অফিসের আধিকারিক, হোটেল মালিক, ব্যবসায়ী এমনকি আইনজীবীরাও। তবে অন্য কোনো অভিনেতা গ্রেপ্তার হয়েছেন কি না, তা এখনো স্পষ্ট নয়।

default-image

জানা গিয়েছে, তল্লাশির সময়ে টাকার বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা বেশ কিছু টোকেনও উদ্ধার হয়েছে। এ ছাড়াও প্রচুর তাস ও টাকাও বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আরও এক জনপ্রিয় অভিনেতা সম্প্রতি শামের বাড়িতে জুয়া খেলে বিরাট অঙ্কের অর্থ খুইয়েছিলেন। তারপরই বিষয়টি পুলিশের নজরে আসে। স্নাতক স্তরে তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্র অনলাইন গেমে প্রচুর টাকা খুইয়ে আত্মঘাতী হওয়ার পরদিনই শামের জুয়ার ঠেকে হানা দিল পুলিশ। পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অফিস থেকে ধার করা ২০ হাজার টাকা জুয়ায় হেরে হতাশ হয়ে পড়েছিলেন ওই যুবক। এরপরই তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

কর্মক্ষেত্রে শেষ ‘কাভিয়াঁ’তে দেখা গিয়েছে শামকে। ২০০০ সালে ‘খুশি’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তাঁর ক্যারিয়ার শুরু। তবে পরের বছর ২০০১ সালে ‘12B’ ছবিতে নায়ক হিসেবে তাঁর অভিষেক হয়। তামিল, তেলেগু ও কন্নড় ভাষায় বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১৭ সালে মালায়লম ফিল্মেও অভিষেক হয় তাঁর। ছবির নাম ছিল ‘দ্য গ্রেট ফাদার’। ‘লেসা লেসা’, ‘ইয়ারকাই’, ‘উল্লাম কেতকুমাই’ ও অন্যান্য বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ফিল্মে অভিনয় করে সাড়া জাগিয়েছেন এই অভিনেতা। তাঁর আসল নাম শামসুদ্দিন ইব্রাহিম। চলচ্চিত্রাঙ্গনে শাম নামেই পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। ১৯৭৭ সালের ৪ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন