বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

আরিয়ান জামিন পাবেন কি না, সেটাই এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়াচ্ছে। মাদক–কাণ্ডের অন্যতম পাণ্ডা অচিত কুমারের সামনাসামনি আরিয়ানকে বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় এনসিবি। আর তাই কিং খানের ছেলেকে বিচারিক হেফাজতে রাখা জরুরি বলে তারা মনে করে। খবর অনুযায়ী, এনসিবি শাহরুখ খানের ছেলের বিরুদ্ধে কঠিন প্রমাণাদি সংগ্রহ করতে ব্যস্ত। আর ইতিমধ্যে এনসিবির হাতে বেশ কিছু প্রমাণও এসেছে বলে খবর। গতকাল রোববার রাতে এনসিবি এক বিদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে। আর তাঁর সঙ্গে আরিয়ানের মাদক মামলার সংযোগ আছে বলে খবর।

প্রমোদতরীর মাদক মামলার বিষয়ে এনসিবি গত শনিবার শাহরুখ খানের গাড়ির চালককে তাদের দপ্তরে ডেকে পাঠিয়েছিল। তাঁকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

default-image

গত শনিবার গভীর রাতে মুম্বাইয়ের গোরেগাঁও এলাকাতে অভিযান চালিয়েছিল এই সংস্থা। সান্তাক্রুজ এলাকা থেকে শিবরাজ রামদাস নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে এনসিবি। মাদক মামলার অন্যতম অভিযুক্ত আরবাজ মার্চেন্টের সঙ্গে শিবরাজের যোগসূত্র পেয়েছে এনসিবি।

মাদকদ্রব্যের সঙ্গে হাতেনাতে ওকোরা ওজামা নামের এক নাইজেরিয়ানকে গ্রেপ্তার করেছে তারা। এখন পর্যন্ত মাদক মামলায় ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে এনসিবি।
মাদক-কাণ্ড মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের সময় কিছু অভিযুক্ত চিত্রনির্মাতা ইমতিয়াজ খত্রীর নাম নিয়েছিল।

default-image

ইমতিয়াজের বাসায় আর অফিসে এনসিবি তল্লাশি চালিয়েছিল। এই চিত্রনির্মাতাকে তারা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। জানা গেছে, আবার তাঁকে জেরা করা হবে। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে বেশ কিছু নম্বর উদ্ধার করেছে এনসিবি। শোনা যাচ্ছে, বলিউড ছাড়া হলিউডের কিছু অভিনয়শিল্পী আর তাঁদের পরিবারের এই মামলার সঙ্গে যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছে তারা। তাই কেঁচো খুঁড়তে আর কত কেউটে বের হয়ে আসবে, তা দেখার অপেক্ষা।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন