বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

টুইটারে এক নোটে তিনি লিখেছেন, ‘সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে জানতে পেরেছি যে রাজ ও আমার বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে। ঘটনা শোনার পর আমি রীতিমতো অবাক।

default-image

এ ব্যাপারে আমি বলতে চাই যে এসএফএল একটি ফিটনেস–সংক্রান্ত উদ্যোগ। আর এটাকে চালান কাশিফ খান। উনি এই ব্র্যান্ড নামে সারা দেশে ফিটনেস জিম খোলার স্বত্ব নিয়েছিলেন। এ–সংক্রান্ত সব চুক্তিপত্রে উনি স্বাক্ষর করতেন। আর ব্যাংক ও অন্যান্য কাজের দায়িত্বও ওনার ওপরই ছিল। আমরা ওনার কোনো লেনদেনের বিষয়ে জানতাম না। আর আমরা ওনার থেকে কোনো টাকাও নিইনি। সব ফ্র্যাঞ্চাইজি উনি নিজেই দেখাশোনা করতেন। এই কোম্পানি ২০১৪ সালে বন্ধ হয়ে যায়। আর এ ব্যবসা কাশিফ খান পুরোপুরি নিজেই চালাতেন।’

default-image

এই বলিউড অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, ‘গত ২৮ বছর ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছি। আর এটা দেখতে খারাপ লাগে যে আমার নাম আর মানসম্মান অতি সহজে ধুলায় মিশে যাচ্ছে। আমাদের দেশের আইনকে আমি সম্মান করি। আমি এই দেশের এক গর্বিত নাগরিক। আমার সব অধিকারবোধ যাতে সুরক্ষিত থাকে, আমি এই আশা করব।’

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন