default-image

আরিয়ান, সুহানা আর আবরামের বাবা শাহরুখ খানকে এখন ‘ভালো বাবা’ বলতে পারেন। যিনি অন্তত সন্তানদের জন্য মদ্যপান, ধূমপান ছাড়ার জন্য প্রস্তুত। বলিউডের এই শীর্ষ তারকার ইচ্ছা, আরও ২০ থেকে ২৫ বছর সন্তানদের পাশে থাকতে চান, বাঁচতে চান। শুধু মদ, সিগারেট নয়, মেজাজটাকেও নিয়ন্ত্রণ রাখার ইচ্ছা তাঁর।
সম্প্রতি ইন্ডিয়া টুডে নামের একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে এমন মন্তব্য করলেন শাহরুখ। ৫০ পার হওয়া শাহরুখ বললেন, মদ–সিগারেট ছেড়ে ব্যায়ামের মাধ্যমে সুস্থ থাকতে চাই। দর্শকের সামনে ধারণ করা ওই অনুষ্ঠানে শাহরুখ জানালেন, কৈশোরে মা–বাবা হারানোর বেদনার কথা। শাহরুখ বলেছেন, ‘যখন আমার ১৫ বছর বয়স ছিল, তখন মা-বাবাকে হারিয়েছি। আমার বাচ্চাদের সঙ্গে একই ঘটনা ঘটুক, সেটা মোটেও চাই না। আমি আরও ২০-২৫ বছর ওদের পাশে থাকতে চাই। এ জন্য সুস্থ থাকা জরুরি।’ শাহরুখ জানালেন, পরিবারের লোকজনকে কথা দিয়েছেন, এবার থেকে আর কোনো বিতর্কে জড়াবেন না।
শাহরুখের দুই সন্তান আরিয়ান ও সুহানা বড় হয়ে গেছেন। তবে তৃতীয় সন্তান আবরাম এখন চার বছরের শিশু। তিনি বলছেন, এ বয়সে একটি শিশুসন্তান থাকা ভালো ব্যাপার।

default-image

শুধু শারীরিকভাবে সুস্থ থাকাই নয়, পরিবারে জন্যই এবার মেজাজও নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইছেন শাহরুখ। ২০১২ সালে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি চাইছেন না তিনি। সে বছর আইপিএলে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়েছিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের স্বত্বাধিকারী শাহরুখ খান।
শাহরুখ দিল্লির পাঠান মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা তাজ মোহম্মদ খান ছিলেন ভারতীয় স্বাধীনতাসংগ্রামী এবং মা লতিফ ফাতিমা ছিলেন একজন ম্যাজিস্ট্রেট ও সমাজসেবী। ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর দিল্লির সম্ভ্রান্ত এক ব্রাহ্মণ পরিবারের মেয়ে গৌরী শিবারকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন শাহরুখ খান।
ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও উইকিপিডিয়া।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন