default-image

বিয়ের অর্ধবর্ষ উদযাপন করছেন নেহা–রোহান। বিয়ের পরের জীবন যে এত আনন্দের হবে, তা যেন নিজেই বুঝতে পারেননি নেহা। গত বছরের ২৪ অক্টোবর তাঁদের বিয়ে হয়। ‘নেহু দ্য বিয়াহ’ সংগীতচিত্রের শুটিং সেটে নেহার প্রেমে পড়েন গায়ক রোহানপ্রীত সিং। সেদিনই তিনি বুঝেছিলেন, কণ্ঠশিল্পী নেহা কক্করকে ছাড়া তাঁর চলবে না।

আজ শনিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একগুচ্ছ ছবি পোস্ট করেছেন নেহা। সেখানে দেখা যাচ্ছে, নেহাকে জড়িয়ে রেখেছেন রোহান। ক্যাপশনে রোহানকে ‘সেরা স্বামী’ উল্লেখ করে নেহা লিখেছেন, রোহান তাঁকে এত ভালোবাসছে যে নিজেই নিজের প্রেমে মশগুল হয়ে আছেন নেহা। তিনি লিখেছেন, ‘প্রতিদিনই সে আমার হৃদয় জয় করছে। এমনকি সে আমাকে নিজের প্রেমে পড়তে বাধ্য করছে। সে সব সময় বলে, সে নাকি আমার চেয়ে বেশি ভালোবাসে। আসলে সে আমাকে যতটা ভালোবাসে, আমি তার চেয়ে একটু হলেও বেশি ভালোবাসি তাকে। রোহান, তুমি সত্যিই আমার দেখা সেরা স্বামী। আমি সত্যিই ভাগ্যবতী। অর্ধবর্ষের শুভেচ্ছা জীবন আমার।’

বিজ্ঞাপন
default-image

নেহার মতো একই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছেন রোহানও। আর জীবনের যত প্রাপ্তি সবকিছুর জন্য নেহাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। লিখেছেন, ‘আমি আজ আমার ফোনের ওয়ালপেপার শেয়ার করছি। যে মেয়েটাকে দেখছেন, ভেতরে ও বাইরে এত সুন্দর যে ব্যাখ্যা করার মতো নয়। অর্ধবর্ষের শুভেচ্ছা তোমাকেও।’

বলা যায়, প্রথম দেখাতেই প্রেম হয়ে গিয়েছিল নেহা ও রোহানের। সেই অভিজ্ঞতা জানিয়ে নেহা বলেছিলেন, ‘সেটের সবাই তাকে খুব পছন্দ করেছিল। বলতে দ্বিধা নেই, আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দর ছেলে সে। তীব্রভাবে আকর্ষণ করত। তখনই কেন যেন মনে হচ্ছিল, সে কেবলই আমার।’ নিজেদের বিয়ে নিয়ে কপিল শর্মার অনুষ্ঠানে নেহা বলেছিলেন, ‘রেকর্ডিংয়ে পরিচয়। এর ভেতর রোহান আমার স্ন্যাপচ্যাটে যুক্ত হতে চাইল। শুরু হলো আলাপ। কিছুদিনের মধ্যেই প্রেমের প্রস্তাব দিল। তখন আমি বললাম, আমি সফল ক্যারিয়ার গড়েছি। প্রেমও করেছি। তবে আর নয়। এবার সোজা বিয়ে করতে চাই। এ কথা শুনে রোহান পিছিয়ে পড়ল। বলল, তার বয়স মাত্র ২৫। আমি এখন কেন বিয়ে করব? ব্যস, প্রেম হওয়ার আগেই আমাদের ব্রেকআপ হয়ে গেল।’

কিছুদিন পরই অবশ্য নেহার নম্বরে রোহানের মেসেজ আসে—‘আমি আপনাকে ছাড়া বাঁচব না। আমি বিয়ে করতে রাজি আছি।’ এরপরই দুই পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের আয়োজন করা হয়। সেই বিয়ের ছয় মাস পেরোল।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন