সূর্যাস্তে সমুদ্রের ধারে দাঁড়িয়ে লাল কাফতান গায়ে একটা ছবি পোস্ট করে সুখবর দিলেন দিয়া মির্জা। মা হতে চলেছেন তিনি। ছবিটি ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। আনুশকা শর্মা, গহর খান, শ্রেয়া ঘোষাল, জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ, কঙ্কণা সেনশর্মা, মালাইকা অরোরা, শিল্পা শেঠি, অদিতি রাও হায়দরি, বিপাশা বসুসহ অসংখ্য তারকা মন্তব্যের উঠানে জানিয়েছেন শুভকামনা। শিগগিরই মা হবেন শ্রেয়া ঘোষালও। তিনি লিখেছেন, ‘কী সুন্দর খবর। এর চেয়ে বড় সুখবর আর হয়ই না। অভিনন্দন প্রিয়।’

default-image

করোনাকালের নতুন স্বাভাবিকতায় গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় ব্যবসায়ী বৈভব রেখিকে বিয়ে করেন তিনি। দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে এটি। বিয়ের পর সবকিছু গুছিয়ে মধুচন্দ্রিমায় গেছেন এই জুটি, সঙ্গে বৈভবের প্রথম স্ত্রীর মেয়ে সামায়রা। সেখান থেকেই মা হওয়ার সুখবর জানালেন এই অভিনেত্রী।

default-image
বিজ্ঞাপন

জীবনসঙ্গীর প্রথম পক্ষের মেয়ে সামায়রাকে নিজের মেয়ের মতোই আপন করে নিয়েছেন। হানিমুনে গিয়ে সেই মেয়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে রীতিমতো নজির স্থাপন করেছেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রশংসাও কুড়িয়েছেন তিনি। বাবার বিয়েতেও উপস্থিত ছিল সে, বরণ করে নিয়েছে নতুন মাকে। এবার মা হওয়ার সুখবর দিলেন দিয়া। ওই পোস্টে লিখেছেন, ‘মা, মাটির এই ধরার আশীর্বাদপুষ্ট হলাম। একটা জীবন, সেখান থেকে অনেক সূচনা জড়িত। অনেক গল্প, ঘুমপাড়ানি গান, নতুন আশা...আমার গর্ভে জন্ম নিচ্ছে শুদ্ধতম স্বপ্ন।’

default-image

২০০০ সালে মিস এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারন্যাশনাল হয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন দিয়া। অভিনয় দিয়ে দর্শকের নজর কাড়লেও ঠিক জ্বলে উঠতে পারেননি। বলিউডে বলাবলি হতো, দিয়া রূপবতী, মেধাবী আর পরিশ্রমী হওয়া সত্ত্বেও বলিউডে জায়গা করে নিতে পারলেন না। শুরুতে সাড়া ফেললেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেকটাই ফ্যাকাশে হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

default-image

২০১৪ সালে ব্যবসায়িক অংশীদার সাহিল সংঘকে বিয়ে করেছিলেন দিয়া। পাঁচ বছরের মাথায় হলো ছন্দপতন। ২০১৯ সালের আগস্টে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন দিয়া ও সাহিল।

default-image
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন