default-image

দীর্ঘ সময় বলিউড থেকে দূরে ‘আশিক বানায়া আপনে’ দিয়ে বলিউডের খাতা খোলা তনুশ্রী দত্ত। শেষবার তিনি দেখা দিয়েছেন ২০১০ সালে ‘অ্যাপার্টমেন্ট’ সিনেমায়। ২০১৮ সালে বিটাউনের এই বঙ্গকন্যা আবার চর্চায় উঠে আসে ‘মি টু’-র জোয়ারে। বলিউডের প্রভাবশালী অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন তিনি। বলা যায়, তনুশ্রীর হাত ধরেই বলিউডে ‘মি টু’র যাত্রা শুরু হয়। এক দশক বিরতির পর এই বলিউড অভিনেত্রী এবার দ্বিতীয় ইনিংস খেলার জন্য প্রস্তুত। আবার সিনেমার দুনিয়ায় আসতে চলেছেন তনুশ্রী। ইনস্টাগ্রামের এক দীর্ঘ পোস্টে নিজেই এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

২০০৪ সালের ‘মিস ইন্ডিয়া’ তনুশ্রী ১৫ কেজি ওজন ঝরিয়েছেন। বিরতিতে তিনি লস অ্যাঞ্জেলেসে মার্কিন সরকারের প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তির পেশার জন্য প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন। সামরিক পরিবারের মেয়ে হিসেবে সব সময় অনুশাসনের মধ্যে বড় হয়েছেন তনুশ্রী। বলিউড ছেড়ে কিছুদিন কাজ করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে। তথ্যপ্রযুক্তির পেশার ক্ষেত্রে দুর্দান্ত কাজের সুযোগ ছিল তনুশ্রীর। কিন্তু ৩৬ বছর বয়সী এই বলিউড নায়িকা আবার আবারও ফিরতে চান অ্যাকশন আর কাটের মধ্যে।
তনুশ্রী বলেন, ‘আমি তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে চাকরির বড় সুযোগ পেলেও করিনি। কারণ, ক্যারিয়ার হিসেবে অভিনয়ই করতে চেয়েছি। অতিমারির পর এই চাকরির জন্য আমাকে নিউইয়র্ক বা লস অ্যাঞ্জেলেসে থাকতে হবে। এমনকি এই চাকরির জন্য তিন বছর আমি আমেরিকা ছাড়ার অনুমতি পাব না। সে জন্য আমাকে তিন বছরের চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করতে হবে। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রের চাকরিতে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়মের অনেক কড়াকড়ি আছে, যাতে কোনো কর্মচারী বারবার চাকরি না ছাড়তে পারে।’


তনুশ্রী লিখেছেন, ‘আমি মনেপ্রাণে একজন শিল্পী। কিছু খারাপ লোক আর তাদের দ্বারা সৃষ্ট সমস্যার জন্য আমাকে আমার কাজ আর শিল্পকলা থেকে দূরে থাকতে হয়েছে। তাই আমি তড়িঘড়ি করে আমার ক্যারিয়ারসংক্রান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নিতে চাই না। আমি আবার বলিউডে প্রত্যাবর্তনের কথা ভাবছি। মুম্বাইতে আমি অনেক ভালো মানুষের সান্নিধ্যে এসেছি। তাই আমি আবার ভারতে ফিরে এসেছি। কিছু সময়ের জন্য এখানে থাকব। আর ভালো কিছু প্রজেক্টে কাজ করব। বলিউড থেকে ছবি এবং ওয়েব সিরিজ করার প্রস্তাব আসছে। ইন্ডাস্ট্রির মানুষেরা আমার শত্রুর থেকে বেশি আমাকে চাইছে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

তনুশ্রী নিজের আগামী প্রজেক্ট সম্পর্কে বলেন, ‘এই মুহূর্তে দক্ষিণী ছবির জগতের তিনজন ব্যবস্থাপকের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। তাঁরা আমাকে বড় ব্যানারের ছবিতে কাজ করতে সাহায্য করবেন। বলিউডের ১২ জন কাস্টিং ডিরেক্টরের সঙ্গে যোগাযোগ আছে। তাঁরা আমার সম্পর্কে সব সত্যি জানেন। তাঁরা সবাই আমার শুভানুধ্যায়ী। কিছু বড় প্রযোজনা সংস্থার ছবির মূল চরিত্রে অভিনয় করার কথাবার্তা চলছে। অতিমারির কারণে শুটিংয়ের দিনক্ষণ স্থির হয়নি। তাই আমি এখনই কোনো ঘোষণা দিতে পারছি না। ১৫ কেজি ওজন ঝরিয়ে আমাকে দেখতে আরও ভালো লাগছে। ইতিমধ্যে একটি বিজ্ঞাপনের কাজ করেছি। কথা দিচ্ছি, শিগগিরই ফিরব।’

default-image
মন্তব্য পড়ুন 0