৩৫০ শ্রমিককে বাড়ি ফেরালেন সোনু

বিজ্ঞাপন
default-image

দীর্ঘদিন লক ডাউনের ফলে ভারতের অর্থনীতি ক্রমেই তলিয়ে যাচ্ছে। দেশজুড়ে হাহাকার। বিশেষ করে দিনমজুরেরা কর্মহীন হয়ে পড়ছেন, ফলে অর্ধাহারে, অনাহারে দিন কাটছে তাঁদের। তবে দেশের এই চরম দুর্দশার সময় বলিউড তারকারা সাহায্যের জন্য দুহাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। খাবার সংস্থান, অর্থ দান, মাস্ক, পিপিই কিটসহ আরও নানাভাবে তাঁরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। অক্ষয় কুমার, শাহরুখ খান, সালমান খান, দীপিকা পাড়ুকোন, আয়েশা টাকিয়াদের পর সেই তালিকায় নাম লেখালেন সোনু সুদ।

যোধা আকবর, দাবাং, সিম্বাখ্যাত বলিউড তারকা সোনু সুদ এক অভিনব উদ্যোগ নিলেন। বলিউড তারকাদের মধ্যে তিনিই প্রথম পরিযায়ী শ্রমিকদের বাসায় ফেরানোর জন্য এগিয়ে এলেন।

হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিক মাইলের পর মাইল হেঁটে বিভিন্ন শহর থেকে নিজেদের গ্রামে ফিরছেন। আর তা দেখে ভারাক্রান্ত হয় সোনুর হৃদয়। তাই পরিযায়ী শ্রমিকদের বাসায় ফেরানোর জন্য ১০টি বাসের ব্যবস্থা করলেন এই বলিউড তারকা। এই বাসগুলো ৩০০ থেকে ৩৫০ শ্রমিককে তাঁদের কর্মস্থল মহারাষ্ট্র থেকে কর্ণাটক নিয়ে পৌঁছাবে।

মহারাষ্ট্র ও কর্ণাটক সরকারের অনুমতি নিয়ে সোনু শ্রমিকদের তাঁদের নিজের বাসায় ফেরানোর ব্যবস্থা নিলেন। এমনকি পরিযায়ী শ্রমিকদের খাওয়াদাওয়ারও বন্দোবস্ত করলেন তিনি। মহারাষ্ট্রের থানে থেকে গতকাল সোনুর ১০টি বাস রওনা দেয় কর্ণাটকের গুলবর্গার উদ্দেশে। এই বলিউড অভিনেতা নিজে দাঁড়িয়ে শ্রমিকদের বিদায় জানিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে সোনু বলেন, ‘আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি যে আমরা যখন একটা ভয়ংকর পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করছি। আর এই সময়ে মানসিকভাবে শক্তিশালী থাকার জন্য প্রত্যেকটা মানুষের নিজের পরিবারের সঙ্গেই থাকা উচিত। আমি মহারাষ্ট্র ও কর্ণাটক সরকারের কাছে অনুমতি নিয়ে ১০টি বাসে করে পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের গ্রামে ফেরানোর ব্যবস্থা নিয়েছি। মহারাষ্ট্র সরকার খুব সহযোগিতা করেছে। আর কর্ণাটক সরকার পরিযায়ীদের স্বাগত জানিয়েছে। শিশুদের কাঁধে করে বা বুড়ো বাবা, মাকে সঙ্গে নিয়ে হেঁটে যাওয়া পরিযায়ী শ্রমিকদের দেখে আমার হৃদয় কেঁদে উঠেছে। আমি আমার ক্ষমতা অনুযায়ী অন্য রাজ্যের জন্যও কাজ করব।’

সোনু আগে পাঞ্জাবের চিকিৎসকদের জন্য ১ হাজার ৫০০ পিপিই কিট দিয়েছেন। রমজানের এই সময় মুম্বাইয়ের ভিওয়ান্ডি এলাকার হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য প্রতিদিন খাবারের বন্দোবস্ত করছেন তিনি। সবকিছুর আগে সোনু মুম্বাইয়ের বুকে নিজের হোটেলের দরজা স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য খুলে দিয়েছেন। আর মা দিবসে মায়ের জন্য কবিতা লিখে তা আবৃত্তি করে অন্তর্জালের দুনিয়ার মাধ্যমে পৌঁছে দিয়েছেন মায়ের কাছে, সবার কাছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন