default-image

বরেণ্য অভিনয়শিল্পী কবরীর চিকিৎসার জন্য পাওয়া গেছে আইসিইউ। জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) ব্যবস্থা করেছেন। দুপুরে প্রথম আলেকে কবরীর চিকিৎসায় আইসিইউ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এই হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ফারুক আহমেদ।

ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনায় আক্রান্ত দেশবরেণ্য অভিনয়শিল্পী কবরীর শারীরিক অবস্থা গতকালের তুলনায় অবনতি হয়েছে। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতের শেষের দিকে তাঁর এই পরিস্থিতির অবনতি হয়। এরপরই তাঁকে দ্রুত আইসিইউ সাপোর্ট দেওয়া লাগবে বলে জানান হাসপাতালের চিকিৎসক। কিন্তু কোথাও আইসিইউর খোঁজ সকাল সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন তাঁর সহকারী নুর উদ্দিন।

default-image

প্রথম আলোকে আজ বৃহস্পতিবার নুর উদ্দিন বলেন, ‘ম্যাডামকে আইসিইউ সেবা দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করা হয় প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে। এরপরই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানান, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে আইসিইউ ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমরাও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করি। তারাও জানান, আইসিইউ রেডি করা হয়েছে। এরপর আমরা বেলা দুইটার পর সেখানে পৌঁছাই। ম্যাডামকে এখন আইসিইউতে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন

হাসপাতালে ভর্তির পর কবরীর একাধিক পরীক্ষা করা হয়েছে। সিটি স্ক্যান রিপোর্ট এখনো হাতে পাননি, তাই ফুসফুসের সার্বিক অবস্থা জানা সম্ভব হয়নি।

default-image

এর আগে সকাল ১১টায় প্রথম আলোকে কবরীর সহকারী বলেন, ‘ম্যাডামের এখনকার শারীরিক অবস্থা নিয়ে আমরা ভীষণ চিন্তিত। যত দ্রুত সম্ভব তাঁকে আইসিইউ সাপোর্ট দিতেই হবে। শেষ রাত থেকে তাঁর অক্সিজেন লেভেল বেশ ওঠানামা করছে। আমার কী করব, বুঝে উঠতে পারছি না। আমাদের সবার যেকোনো সমস্যায় তিনিই তো কথা বলতেন। যেখানে যা দরকার, যত বড় পর্যায়ের মানুষকে বলা দরকার, তিনিই বলতেন। আমাদের সেই বলার মানুষটিই তো এখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে আছেন। সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যাঁরা আছেন, তাঁরা যদি ম্যাডামের চিকিৎসার ব্যাপারে আলাদাভাবে নজর দিতেন, তাহলে আমরা কিছুটা শক্তি ও সাহস পেতাম। ভীষণ অসহায় লাগছে। ম্যাডামকে এভাবে দেখতে খুব কষ্ট লাগছে।’

default-image

হঠাৎ খুসখুসে কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত হলে করোনার উপসর্গ ভেবে চিন্তায় পড়েন বরেণ্য অভিনয়শিল্পী সারাহ বেগম কবরী। এরপর পারিবারিক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলেন। তারপর বাসা থেকেই করোনার নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যায় হাসপাতালের নমুনা সংগ্রহকারী ইউনিট।

default-image

৫ এপ্রিল দুপুরে টেস্টের ফলাফল হাতে পেলে জানতে পারেন, তিনি করোনা পজিটিভ। তারপর আর দেরি না করে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। ওই দিন রাতেই তাঁকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে সেই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন তিনি। করোনায় আক্রান্তের খবরটি নিয়ে প্রথম আলোর সঙ্গে বুধবার বিকেলে কথা হয় কবরীর।

সম্প্রতি কবরী শুটিং শেষ করেছেন ‘এই তুমি সেই তুমি’ নামের নতুন একটি সিনেমার। সরকারি অনুদানের এই ছবির ডাবিং ও সম্পাদনার কাজ চলছিল। ছবিটিতে কবরীর পরিচালনায় প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিশাত সালওয়া ও রিয়াদ রায়হান। ছবিটির একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করবেন কবরীও। এই ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন সাবিনা ইয়াসমীন। এরই মধ্যে নতুন আরেকটি সিনেমা নির্মাণের পরিকল্পনাও হাতে নিয়েছেন কবরী। গল্প ও চিত্রনাট্যের কাজ অনেকটা এগিয়েও নিয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন