বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

‘অস্কার কোয়ালিফাইং’ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নুহাশ বলেন, ‘বিশ্বে অনেকগুলো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব আছে। যেগুলোর পুরস্কার বিজয়ী সিনেমাগুলোকে “অস্কার কোয়ালিফাইং” বিবেচনা করা হয়। আটলান্টা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল সেগুলোর মধ্যে একটি উৎসব। এটি বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের জন্য ভালো খবর। হরর শর্ট ফিল্মটি এত দূর পৌঁছেছে তাতে আমি অনেক খুশি। আমি আমার ফিল্মটি নিয়ে যত দূর যাওয়া যায়, সেই চেষ্টা করব।’

default-image

পুরস্কার পেয়ে তিনি তাঁর সহকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি পোস্ট দিয়েছেন। নুহাশ তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের হরর ছবিটি সেরা ন্যারেটিভ শর্টের জন্য আটলান্টা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল জুরি পুরস্কার জিতেছে। আর এই পুরস্কার জেতায় ছবিটি অস্কারে যাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। এই যাত্রার অংশ হওয়ার জন্য আমার অবিশ্বাস্য দল, আমার পরিবার এবং বাংলাদেশে ও তার বাইরের শিল্পী–সহকর্মীদের ধন্যবাদ।’

ছবিটি চলতি বছর মার্চ মাসে মুক্তি পায় সাউথ বাই সাউথওয়েস্ট চলচ্চিত্র উৎসবে। এতে অভিনয় করেন ‘ন ডরাই’ সিনেমার অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামাল এবং হুমায়ূন আহমেদের নাতনি নাইরা। সিনেমার গল্পে দেখা যায়, বিশ্ব রক্তপিপাসু মশা দিয়ে ভরে গেছে। শেষ মানুষ হিসেবে দুজন নারী বাংলাদেশে বেঁচে থাকে। তারা অজানা আতঙ্কে মশারির নিচে রাত পার করতে থাকে। এই নতুন পৃথিবীতে বেঁচে থাকার জন্য দুই বোন অপু (সুনেরাহ) ও আয়রা (নাইরা) লড়াই করে। এক রাতে, আয়রা মশারি ঠিক করতে বাইরে বের হয়, অপুকেও উঠতে হয় সে সময়। তখন তারা একসঙ্গে ভূতের মুখোমুখি হয়।

এ ছাড়া কান চলচ্চিত্র উৎসবের মার্শে দ্যু ফিল্মেও থাকছে নুহাশ হ‌ুমায়ূন নির্মিত এই ভৌতিক সিনেমাটি। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যের প্রধান শহর অস্টিনে অনুষ্ঠিত সাউথ বাই সাউথওয়েস্ট চলচ্চিত্র উৎসবেও প্রদর্শিত হয় ‘মশারি’। এরপর একই শহরের ‘ইন্ডিমিম ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’-এ ছবিটি প্রশংসিত হয়। সর্বশেষ ২৮ এপ্রিল থেকে ১ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসবেও প্রদর্শিত হয় ‘মশারি’।

default-image

‘অস্কার কোয়ালিফাইং’ প্রসঙ্গে মার্কিন চলচ্চিত্র সাময়িকী ‘মুভিমেকার’–এ বলা হয়েছে, অস্কারে পুরস্কৃত প্রতিটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেরই যাত্রা শুরু হয় কোনো না কোনো চলচ্চিত্র উৎসব থেকে। এর কারণ হলো, একাডেমি অব মোশন পিকচার্স আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস বিশ্বজুড়ে নির্দিষ্ট কিছু উৎসবের নির্দিষ্ট কিছু পুরস্কার বিজয়ী ছবিকে তারা অস্কারে মনোনয়নের তালিকায় রাখার জন্য বেছে নেয়। বিশ্বব্যাপী ৭ হাজার চলচ্চিত্র উৎসবের মধ্যে মাত্র ৬৩টি উৎসবের ‘অস্কার কোয়ালিফাইং’ হিসেবে স্বীকৃতি রয়েছে।

নুহাশ সর্বশেষ নির্মাণ করেছেন ভৌতিক সিরিজ ‘ষ’। স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম চরকি প্রযোজিত ‘ষ’ নিয়ে বিনোদন অঙ্গন ও দর্শকের মধ্যে ব্যাপক আলোচনাও হয়েছে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন