বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উৎসবের জন্য নির্বাচিত বাংলাদেশসহ ৭০টি দেশের ২২৫টি ছবির মধ্যে পূর্ণদৈর্ঘ্য ১২৯টি এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য ও স্বাধীন চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৯৬টি। এর মধ্যে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র রয়েছে ৪০টি। যার ২২টি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও ১৮টি পূর্ণদৈর্ঘ্য। প্রতিযোগিতা বিভাগে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশের বাছাইকৃত ৯টি চলচ্চিত্র।

উৎসবের ভেন্যুগুলো হচ্ছে জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তন ও কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তন, শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তন, নন্দন থিয়েটার (মুক্ত মঞ্চ) ও নৃত্যশালা মিলনায়তন, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ মিলনায়তন ও স্টার সিনেপ্লেক্স। কেবল আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একাডেমি মিলনায়তনে চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

default-image

আজ বিকেল চারটায় জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধন হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। বিশেষ অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। স্বাগত বক্তব্য দেবেন উৎসব পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্রদর্শিত হবে মারি ইভানোভা পরিচালিত ছবি ‘দ্য অ্যাঙ্গার’।

উৎসব পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল বলেন, ‘আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র ধারার সঙ্গে দেশের তরুণ ও প্রতিশ্রুতিশীল নির্মাতাদের সংযোগ স্থাপনের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করছে এই উৎসব। পাশাপাশি ভালো ছবি দেখার পরিবেশ সৃষ্টিতেও রাখছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। এ ধরনের উৎসবের মাধ্যমে রুচিসম্পন্ন দর্শক তৈরির পাশাপাশি গড়ে উঠছে ইতিবাচক সংস্কৃতি।’

তিনি বলেন, জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা, বেলা ১টা ও ৩টার প্রদর্শনী পরিচয়পত্র দেখিয়ে শিক্ষার্থীরা বিনা মূল্যে দেখতে পারবেন। সাধারণ দর্শনার্থীদের জন্য টিকিট মূল্য থাকবে ৫০ টাকা। এ ছাড়া কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে সকাল সাড়ে ১০টায় শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। এ সময় অভিভাবকেরাও শিশুদের সঙ্গে এই চলচ্চিত্রগুলো বিনা মূল্যে উপভোগ করতে পারবেন। জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজের সব প্রদর্শনী সবাই বিনা মূল্যে উপভোগ করতে পারবেন। আসনসংখ্যা সীমিত থাকায় আগে আসার ভিত্তিতে আসন বণ্টন করা হবে। স্টার সিনেপ্লেক্সে কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত মূল্যের টিকিটের বিনিময়ে চলচ্চিত্র দেখা যাবে। আর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একাডেমি মিলনায়তনে আমন্ত্রিত অতিথিরা চলচ্চিত্র দেখার সুযোগ পাবেন।

উৎসবের অংশ হিসেবে ১৬ ও ১৭ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেন্ডার স্টাডিজ ডিপার্টমেন্টের সহযোগিতায় চলচ্চিত্রে নারীর ভূমিকাবিষয়ক ‘অষ্টম আন্তর্জাতিক উইমেন ফিল্ম মেকারস কনফারেন্স’ ঢাকা ক্লাবের স্যামসন লাউঞ্জের ২য় তলায় অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ১৬-১৯ জানুয়ারি আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ গ্যালারিতে চার দিনের চলচ্চিত্রবিষয়ক সেমিনার ও চিত্রনাট্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এতে শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্য পাবে ৫ হাজার মার্কিন ডলার, দ্বিতীয় স্থান অধিকারী চিত্রনাট্য পাবে ৩ হাজার মার্কিন ডলার এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী চিত্রনাট্য পাবে ২ হাজার মার্কিন ডলার।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন