ত্রনায়িকা শবনম বুবলী আত্মরক্ষার জন্য থানায় হাজির হয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন
ত্রনায়িকা শবনম বুবলী আত্মরক্ষার জন্য থানায় হাজির হয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেনছবি: কোলাজ

গাড়িচাপা দিয়ে হত্যাচেষ্টায় আতঙ্কিত চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী আত্মরক্ষার জন্য থানায় হাজির হয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন। গতকাল শুক্রবার রাতেই তিনি থানায় হাজির হয়ে সাধারণ ডায়েরি করেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন বাবা ও ছোট ভাই।
উত্তরা পশ্চিম থানায় দায়ের করা বুবলীর সাধারণ ডায়েরি নম্বর ১৯১৭। প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে আজ শনিবার দুপুরে বুবলী বলেন, ‘গতকাল ভেবেছিলাম, দু–এক দিন পর সাধারণ ডায়েরি করব। এরই মধ্যে গতকাল সন্ধ্যায় আমি একটি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে অংশ নিই। বাসায় ফিরতে রাত ১১টা বেজে যায়। বাসায় ফেরার পর আব্বু-আম্মু আমাকে বলেন, কয়েক দিন ধরে যেসব ঘটনা ঘটছে, তাতে আর দেরি করার কোনো মানে হয় না। আজ রাতেই যেন ঘটনাটি থানায় অবহিত করি। এরপর আব্বু, ছোট ভাইসহ থানায় গিয়ে ঘটনাটি উল্লেখ করে সাধারণ ডায়েরি আকারে লিপিবদ্ধ করি।’

default-image

শুক্রবার বিকেলে প্রথম আলোকে বুবলী জানিয়েছিলেন, শুটিংয়ে যাওয়া–আসার পথে কে বা কারা তাঁর গাড়ি অনুসরণ করছে। একাধিকবার তাঁকে গাড়িচাপা দেওয়ার চেষ্টাও করেছে। এসব তিনি ও তাঁর পরিবার আতঙ্কিত। তবে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বিজ্ঞাপন

বুবলী তাঁর ফেসবুকে গতকাল লিখেছিলেন, ‘সব সড়ক দুর্ঘটনা দুর্ঘটনা নয়, অনেক সময় পরিকল্পিতও হয়, তা গত দুদিনে টের পেয়েছি। উপলব্ধি করেছি, আমরা যা দেখি বা যা শুনি, তার পেছনেও অন্য এক অজানা সত্য থাকে। মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখলাম। ভাবছিলাম আজকের দিনটিতে আমাকে নিয়ে অন্য রকম সংবাদও হতে পারত। মা-বাবা, ভাইবোনদের দোয়া আর আপনাদের ভালোবাসায় এ যাত্রায় সুস্থ আছি।’

default-image

বুবলী এ–ও লেখেন, ‘গত পাঁচ দিন “চোখ” নামের একটি সিনেমার শুটিং করছিলাম। শুটিং শেষে রাতে বাসায় ফেরার পথে বিপরীত দিক থেকে কোনো হর্ন না বাজিয়ে, কোনো সিগন্যাল না দিয়ে আমার গাড়ির সামনে প্রচণ্ড বেগে তেড়ে আসে একটি প্রাইভেট কার, যার গ্লাস ছিল ব্ল্যাক পেপার দিয়ে মোড়ানো। ছিল না কোনো নম্বর প্লেট। তাৎক্ষণিকভাবে আমার ড্রাইভার হার্ড ব্রেক না করলে হয়তো অন্য কিছু হতে পারত। আমি নিজেও ড্রাইভিং জানি, তাই কোনটি দুর্ঘটনা আর কোনটি ইচ্ছাকৃত, তা বোঝার ক্ষমতা নিশ্চয়ই একজন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষের মতো আমারও আছে। প্রথম দিন সব বুঝতে পেরেও মনকে সান্ত্বনা দিয়েছিলাম হয়তো বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ি এত জোরে আসার কারণে কন্ট্রোল রাখতে পারেনি। কিন্তু একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে সেটি আর বুঝতে বাকি থাকে না যে এটি উদ্দেশ্যমূলকভাবেই করানো হচ্ছে। অনেক দিন ধরেই আমি নানাভাবে নানান কিছু বুঝতে পারছি, শুনতে পারছি। কিন্তু যাঁরাই এসব ন্যক্কারজনক অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকবেন, তাঁরাও নিশ্চয়ই বারবার সুযোগের অপেক্ষায় থাকবেন। কিন্তু মনে রাখবেন, কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন, আর আল্লাহ তো একজন আছেন, যিনি সবই দেখেন। শিগগিরই আমি আইনি ব্যবস্থা নেব।’

default-image

আইনি ব্যবস্থা নিতে দেরি করেননি বুবলী। রাতেই তিনি উত্তরা পশ্চিম থানায় হাজির হয়ে সাধারণ ডায়েরি করেন। সাধারণ ডায়েরিতে বুবলী উল্লেখ করেছেন, ‘আমি একজন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। চলচ্চিত্রের কাজের কারণে প্রায় সময় আমাকে বিভিন্ন জায়গায় যাওয়া–আসা করতে হয়। শুটিংয়ের কারণে বাসায় ফিরতে অনেক সময় রাত হয়ে যায়। এমতাবস্থায় প্রায় গত বেশ কয়েক দিন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা নম্বরবিহীন প্রাইভেট কার ও মাইক্রোবাস ব্যবহার করে আমাকে ফলো করছে। অদ্য ২৫ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত আনুমানিক দুইটার দিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে শুটিং শেষ করে উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরের বাড়িতে ফেরার পথে আনুমানিক ৩টার সময় উত্তরা পশ্চিম থানার ৩ নম্বর সেক্টরের জসীম উদ্‌দীন রোডে পৌঁছামাত্র উল্টো দিক থেকে নম্বর প্লেটবিহীন একটি প্রাইভেট কার এসে আমার গাড়ির সামনে হার্ড ব্রেক করে। আমি আশঙ্কা করছি, অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা যেকোনো সময় আমার ক্ষতি করতে পারে। উপরোক্ত বিষয়টি আপনার থানায় সাধারণ ডায়েরি করতে যেন মর্জি হয়।’

default-image

বুবলীর দায়ের করা সাধারণ ডায়েরি নিয়ে কথা হয় উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতারুজ্জামান ইলিয়াসের সঙ্গে। তিনি বললেন, ‘সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। তদন্ত হবে। একজন তদন্তকারী কর্মকর্তা ঘটনার অনুসন্ধান করবেন। এটা অধর্তব্য অপরাধ, তাই তিনি জিডি করেছেন। এটার যদি অধিকতর তদন্তের দরকার হয়, তার সবকিছুই আমরা করব।’

বিজ্ঞাপন
default-image

লম্বা সময় চুপচাপ ছিলেন বুবলী। সে সময়ে চলচ্চিত্রের কারও সঙ্গে সামনাসামনি দেখা হয়নি খুব একটা। তবে ফোনে কারও কারও সঙ্গে কথা হতো। কেউ কেউ ছবিতে অভিনয়ের জন্য যোগাযোগ করতেন। কিন্তু ব্যাটে-বলে না মেলায় সেসব ছবিতে ‘হ্যাঁ’ করেননি এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি তিনি ‘চোখ’ নামের নতুন ছবিতে নাম লেখান। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করছেন নিরব ও রোশান। ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে নারায়ণগঞ্জে ছবিটির শুটিংয়ে অংশ নেন বুবলী। এর আগে ‘ক্যাশ’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয়ের কথা শোনা গিয়েছিল বুবলীর। শেষ পর্যন্ত সম্মানী নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় ছবিটিতে অভিনয় করতে রাজি হননি বুবলী। এদিকে ‘চোখ’ সিনেমার চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করার পরপরই শাকিব খানের বিপরীতে ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ নামের আরেকটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন তিনি। তপু খান পরিচালিত ছবিটির শুটিং মার্চের শেষ সপ্তাহে শুরু হবে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন