‘আর নয়’ বললেন জয়া

বিজ্ঞাপন
default-image

বিশ্বের প্রভাবশালী ২৪ নারীর সঙ্গে কণ্ঠ মিলিয়ে বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান বললেন, ‘আর নয়’। সম্প্রতি ‘কমনওয়েলথ সেজ নো মোর’ নামে শুরু হওয়া কমনওয়েলথের একটি কর্মসূচির অংশ হিসেবে জয়া নারীর ওপর পারিবারিক সহিংসতা ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে বললেন, ‘পারিবারিক সহিংসতা ও যৌন নিপীড়ন আর নয়। আমি গর্বের সঙ্গে কমনওয়েলথের এ কর্মসূচির অংশ হয়ে নারীর প্রতি সহিংসতা ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার প্রতিজ্ঞা করছি।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রথমবারের মতো প্যান-কমনওয়েলথ আয়োজিত এ কর্মসূচিতে জয়া আহসান বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। এ কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া প্রভাবশালী নারীদের মধ্যে আরও আছেন কমনওয়েলথের মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া স্কটল্যান্ড, মরিশাসের সাবেক রাষ্ট্রপতি আমিনা গুরিব-ফাকিম, নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্ক, জাতিসংঘের যুগ্ম মহাসচিব আমিনা জে মোহাম্মদ, ব্রিটিশ সংগীতশিল্পী গেরি হেলিওয়েল, ব্রিটিশ অভিনেত্রী নিনা ওয়াদিয়া, ভারতীয় অভিনেত্রী শাবানা আজমি, পাকিস্তানি অভিনেত্রী মাহিরা খানসহ বিভিন্ন দেশের রাজনীতিবিদ, সমাজকর্মী ও শিল্পীরা।

শুধু নারীরাই নন, এ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন পেশা ও অবস্থানের প্রভাবশালী পুরুষেরা। আছেন অ্যান্টিগুয়া ও বারবুডার গভর্নর জেনারেল স্যার রডনি উইলিয়ামস, সিশেলসের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিচি লওর, ব্রিটিশ অভিনেতা কলিন স্যামন, অস্ট্রেলীয় অভিনেতা রায়ান জনসন। জয়া আহসানের মতো করেই তাঁরা প্রত্যেকে কমনওয়েলথের জন্য পাঠিয়েছেন ভিডিও বার্তা। প্রতিটিতেই বলেছেন, ‘নারীর ওপর পারিবারিক সহিংসতা ও যৌন নিপীড়ন আর নয়।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

জয়া আহসান নিয়মিতই বিভিন্ন দাতব্য কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত থাকেন। মানবিক কার্যক্রমে তাঁকে প্রায়ই সোচ্চার হতে দেখা যায়। হোক তা শিশুশ্রম, প্রাণীর অধিকার রক্ষা বা নারীর নিরাপত্তা। সময়ের প্রতিনিধি হিসেবে নিজ অবস্থান থেকে জয়া আহসান নিজের মতামত প্রকাশ করেন আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই। এবারও তা–ই করলেন। জয়া আহসান বলেন, ‘নারীর ওপর সহিংসতা ও বৈষম্য আমাদের রক্তের ভেতর ঢুকে গেছে, যা আমরা বুঝতেই পারি না। আর এ কারণেই সমাজ পঙ্গু হয়ে যাচ্ছে। সমাজে আমরা যা কিছু অধঃপতন দেখি, তা কিন্তু আমাদের শিরায় শিরায় মিশে যাচ্ছে অনেক ছোট ছোট বিষয় থেকে। স্লো পয়জনের মতো করে নারীর প্রতি সহিংসতা-অত্যাচার আমাদের সমাজে মিশে গিয়ে সবকিছুকে বিষিয়ে তুলছে।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

করোনাকালের সঙ্গনিরোধ পর্ব কাটিয়ে কাজে সরব হচ্ছেন জয়া আহসান। কমনওয়েলথের এ কর্মসূচির পাশাপাশি জয়া এই সময়ের মধ্যে আরও বেশ কিছু কাজ নিয়ে ভাবছেন। আগামী ৩ অক্টোবর ঢাকায় শুরু করবেন নতুন একটি সিনেমার কাজ। তবে নামটি এখনই প্রকাশ করতে চাননি জয়া। এ কাজের পাশাপাশি এই অভিনেত্রী অপেক্ষায় আছেন বাংলাদেশ-ভারতের বিমান চলাচল সচল হওয়ার। কারণ, তাঁর জন্যই কলকাতায় তিনটি ছবির কাজ আটকে আছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন