default-image

প্রশিক্ষণ নিতে শুরু করেছেন আঁচল। শিখছেন ইশারার ভাষা। বাক্‌শক্তিহীন মানুষেরা যে ভাষায় নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করে, সেই ভাষা শেখা সহজ কথা নয়। কিন্তু বিশেষ প্রয়োজনে আঁচলকে শিখতে হচ্ছে। এ রকম এক ভূমিকায় দেখা যাবে এই অভিনয়শিল্পীকে।

আঁচল অভিনীত সবশেষ সিনেমা ‘দাগ হৃদয়ে’ মুক্তি পায় ২০১৯ সালে। তারপর আর কোনো সিনেমা আসেনি তাঁর। তবে কাজ শুরু করেছিলেন ‘রাগী’ ও ‘এক কোটি টাকা’ নামে দুটি ছবিতে। নানা কারণে সেগুলোর শুটিং বন্ধ। এ ছাড়া তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘মঙ্গলযাত্রা’ ও ‘প্রিয়জন প্রিয়জন’ নামে আরও দুটি ছবিতে। শিগগিরই যে ছবিটায় কাজ করতে যাচ্ছেন তিনি, সেখানে একজন বোবা তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করবেন আঁচল। আগামী মঙ্গলবার থেকে ঢাকায় শুরু হবে ‘চিৎকার’ নামের ওই ছবির শুটিং।

বিজ্ঞাপন
default-image

ইতিমধ্যে প্রায় দুই ডজন ছবিতে অভিনয় করেছেন আঁচল। নায়িকা হিসেবে কাজ করেছেন নানা রকম চরিত্রে। সেই তালিকায় যোগ হতে যাচ্ছে আরও একটি ব্যতিক্রম চরিত্র। কেমন হবে সেটি? জানতে চাইলে আঁচল বলেন, ‘আগে এ ধরনের চরিত্রে কাজ করিনি। তাই কাজটা আমার জন্য খুব একটা সহজ হবে না। একজন বাক্‌শক্তিহীন মানুষের চরিত্রে অভিনয় কঠিন কাজ। চরিত্রটি আমার জন্য চ্যালেঞ্জের। কর্মশালা শুরু করেছি। ছবির পরিচালক আমার জন্য একজন প্রশিক্ষক ঠিক করে দিয়েছেন। তিন–চার দিন প্রশিক্ষণ নিয়ে শুটিং শুরু করব।’

এখনকার সময়ের গল্প বলবে ‘চিৎকার’ ছবিটি। মাদক ও ধর্ষণের মতো অপরাধের সঙ্গে একজন বোবা তরুণীর আর্তনাদ উঠে আসবে কাহিনিতে। ‘চিৎকার’ ছবিতে আঁচলের বিপরীতে অভিনয় করছেন এ কে আজাদ আদর। ছবিটির পরিচালক ইয়াসির জুয়েল জানান মূলত ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য তৈরি হচ্ছে এ ছবি। তবে প্রেক্ষাগৃহ খুললে মাল্টিপ্লেক্সগুলোতেও ছবিটি প্রদর্শন করার ইচ্ছা আছে।

default-image

২০১৮ সালের পর থেকে কাজের গতি অনেকটাই কমে গেছে আঁচলের। কেন? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গত দু-তিন বছর ঢাকায় সিনেমার সংখ্যা কম। এ কারণে আমাদের অনেকেরই কাজের গতি ধীর হয়ে গেছে। তবে আমি বসে ছিলাম না। মাঝের সময়টায় “ইন্দুবালা”, “জার্নি”, “ধোঁকা”সহ অনেকগুলো ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছি। দেশ-বিদেশে স্টেজ শো করেছি। নানা রকম কাজের মধ্যেই ছিলাম।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0