default-image

করোনায় আক্রান্ত বরেণ্য অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাতের শেষ দিকে তাঁর অবস্থার অবনতি হয়। চিকিৎসকেরা জানান, তাঁকে দ্রুত নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেওয়া প্রয়োজন। কিন্তু আজ সকাল পর্যন্ত কবরীর জন‍্য আইসিইউ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

আজ সকালে কবরীর সহকারী নূর উদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, ‘ম্যাডামের শারীরিক অবস্থা নিয়ে আমরা ভীষণ চিন্তিত। যত দ্রুত সম্ভব তাঁকে আইসিইউ সাপোর্ট দিতে হবে। শেষ রাত থেকে তাঁর অক্সিজেন লেভেল বেশ ওঠানামা করছে। কী করব বুঝে উঠতে পারছি না। আমাদের সবার যেকোনো সমস্যায় তিনি কথা বলতেন। যেখানে যা দরকার, যত বড় পর্যায়ের মানুষকে বলা দরকার, তিনিই বলতেন। আমাদের সেই বলার মানুষটিই তো এখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে আছেন। সরকারের উচ্চপর্যায়ে যাঁরা আছেন, তাঁরা যদি ম্যাডামের চিকিৎসার ব্যাপারে আলাদাভাবে নজর দিতেন, তাহলে আমরা কিছুটা শক্তি ও সাহস পেতাম। ভীষণ অসহায় লাগছে। ম্যাডামকে এভাবে দেখতে খুব কষ্ট লাগছে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

হঠাৎ করে খুসখুসে কাশি ও জ্বরে আক্রান্ত হলে করোনার উপসর্গ ভেবে চিন্তায় পড়েন সারাহ বেগম কবরী। এরপর পারিবারিক চিকিৎসকের পরামর্শমতো নমুনা পরীক্ষা দেন। ৫ এপ্রিল দুপুরে প্রতিবেদন হাতে পেলে জানতে পারেন, তিনি করোনা পজিটিভ। তারপর আর দেরি না করে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। ওই দিন রাতেই তাঁকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর প্রথম আলোর সঙ্গে গতকাল বুধবার বিকেলে কথা বলেন কবরী। হাসপাতালে ভর্তির পর কবরীর একাধিক পরীক্ষা করা হয়েছে। তাঁর ফুসফুসের সর্বশেষ অবস্থা জানতে সিটি স্ক্যান করা হয়। সেই রিপোর্ট আজ হাতে পাওয়ার কথা রয়েছে।

সম্প্রতি পরিচালক হিসেবে কবরী শুটিং শেষ করেছেন ‘এই তুমি সেই তুমি’ নামে নতুন একটি সিনেমার। সরকারি অনুদানের এই ছবির ডাবিং ও সম্পাদনার কাজ চলছিল। ছবিটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিশাত সালওয়া ও রিয়াদ রায়হান। ছবিটির একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করবেন কবরী নিজেও। এই ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন সাবিনা ইয়াসমীন। এরই মধ্যে নতুন আরেকটি সিনেমা নির্মাণের পরিকল্পনা শুরু করেন তিনি।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন