করোনায় আক্রান্ত নায়িকা পপির শ্বাসকষ্ট বেড়েছে

বিজ্ঞাপন
default-image

ঘরে থেকেও করোনা থেকে রেহাই পেলেন না নায়িকা পপি। করোনার লক্ষণ দেখা দিলে গত সপ্তাহে তিনি নমুনা পরীক্ষা করান। সম্প্রতি ফলাফল আসে তিনি কোভিড-১৯ পজিটিভ। এরপর থেকে খুলনার নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন তিনি। খুলনা থেকে তিনি নিজেই খবরটি জানিয়েছেন।

পপি বলেন, ‘বেশ কিছুদিন হলো তাঁর জ্বর ছিল, সঙ্গে কাশি। মাঝে জ্বর কমেও গিয়েছিল। কিন্তু শরীর ভালো লাগছিল না। একসময় শ্বাসকষ্ট অনুভূত হচ্ছিল। পরে পরিবারের লোকেরা করোনার জন্য নমুনা পরীক্ষা করাতে পরামর্শ দেন। গত বুধবার সেই ফল হাতে পেয়েছেন তিনি।’

default-image

এখন কেমন লাগছে? জানতে চাইলে পপি বলেন, ‘শ্বাসকষ্ট কিছুটা বেড়েছে। জ্বর ও কাশি দুটোই আছে। শরীর খুব দুর্বল। বাসায় আলাদা থেকে পারিবারিক ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিচ্ছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।’

এর আগে পপিদের বাসার কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি। তিনি কীভাবে আক্রান্ত হলেন? পপি বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পর থেকে বেশ সতর্কতার সঙ্গে চলাফেরা করছিলাম। তবে কিছুদিন ধরে রাতের বেলা শহরের বিভিন্ন জায়গায় ছিন্নমূল অসহায় মানুষের জন্য খাবার বিতরণ করেছি। এর বাইরে কোথাও বের হইনি। কীভাবে কী হলো, বলতে পারছি না।’

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর ঢাকা থেকে খুলনায় পৈতৃক বাড়িতে চলে যান পপি। প্রায় তিন মাস ধরে সেখানেই অবস্থান করছেন তিনি। প্রথম দিকে পরিবারের সহযোগিতায় পপি নিজেই শহরের বিভিন্ন জায়গায় স্বল্প আয়ের মানুষকে সহায়তা দিয়েছেন। প্রায় দেড় মাস ধরে এই সহযোগিতার কাজ অব্যাহত রাখেন তিনি। পরে করোনোর প্রকোপ বেড়ে গেলে ঘর থেকে বের হওয়া বন্ধ করে দেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন