default-image

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নিয়ে চ্যানেল আইয়ের ভিন্নমাত্রার অনুষ্ঠান ‘আমার ছবি’র উপস্থাপক, প্রবীণ সাংবাদিক, চলচ্চিত্র সংসদের কর্মী শফিউজ্জামান খান লোদী আর নেই। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। আজ বাদ আসর জানাজার পর উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থানে শফিউজ্জামান খান লোদীকে দাফনের কথা রয়েছে।

default-image

প্রথম আলোকে জানিয়েছেন শফিউজ্জামান খান লোদীর মৃত্যুসংবাদ নিশ্চিত করেছেন তাঁর বড় মেয়ে সুমাইয়া লোদী। করোনা পজিটিভ হওয়ার পর প্রথমে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় শফিউজ্জামান খান লোদীকে। অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে উত্তরার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত চার দিন সেখানকার নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
default-image

শফিউজ্জামান খান লোদীর উপস্থাপনায় চ্যানেল আইয়ের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘আমার ছবি’র প্রচার শুরু হয় ২০০০ সালে। প্রায় ১৮ বছর ধরে তিনি অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করে আসছেন। ইতিমধ্যে প্রচারিত হয়েছে এর ৮১০টি পর্ব। বিষয়ের বৈচিত্র্য এবং ভিন্ন ধরনের পরিকল্পনার কারণে অনুষ্ঠানটি দ্রুত দর্শকপ্রিয় হয়ে ওঠে।

‘আমার ছবি’ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কারসহ বিভিন্ন সংস্থার পুরস্কার অর্জন করে। অনুষ্ঠানটির প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত উপস্থাপনা করেছেন শফিউজ্জামান খান লোদী। শামীম আলম দীপেনের সঙ্গে অনুষ্ঠানটি পরিচালনাও করতেন তিনি।

default-image

শফিউজ্জামান খান লোদী স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে রেখে গেছেন।  বগুড়ায় জন্ম হলেও শফিউজ্জামান খান লোদীর বেড়ে ওঠা ও পড়াশোনা ঢাকায়।  ধানমন্ডি সরকারি বালক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি শেষে ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোক প্রশাসন বিষয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। বিভিন্ন ধরনের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন