কান চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতা শাখা ও আঁ সার্তে রিগা এবং প্যারালাল সেকশন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিটিকস উইক থেকে সেরা একটি করে ছবি পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করে ফিপরেস্কি। বিধান রিবেরু প্যারালাল সেকশন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিটিকস উইকে নির্বাচিত ছবিগুলো দেখে বিজয়ী ছবি নির্বাচন করবেন। তাঁর সঙ্গে থাকবেন বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্র সমালোচকেরা।

বিধান তাঁর ফেসবুকে একটি পোস্টে লিখেছেন, ‘আন্তর্জাতিক পরিসরে প্রথমে ২০তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিচারক হিসেবে কাজ করার সুযোগ পাই ফিপ্রেসি থেকে। দ্বিতীয় ডাকটাই এল দুনিয়ার সবচেয়ে বড় চলচ্চিত্র উৎসব কান থেকে। জুরি হিসেবে থাকব প্যারালাল সেকশনে। এ আনন্দ আমি ভাগ করে নিতে চাই আমার পরিবার, বন্ধু ও পরিচিতজনদের সঙ্গে এবং অবশ্যই একজন মানুষের সঙ্গে, তিনি আহমেদ মুজতবা জামাল ভালোবাসা জানবেন।’

প্রথম চলচ্চিত্র সমালোচক হিসেবে ২০০২ সালে বাংলাদেশের আহমেদ মুজতবা জামাল ফিপরেস্কির বিচারক নির্বাচিত হন। কানের ওই আসরে বাংলাদেশি নির্মাতা তারেক মাসুদের ‘মাটির ময়না’ ফিপরেস্কি পুরস্কার জিতে নেয়। ২০০৫ ও ২০০৯ সালে আরও দুবার ফিপরেস্কির বিচারকের আসনে বসেছিলেন আহমেদ মুজতবা জামাল। ২০১৯ সালে সাদিয়া খালিদ রীতি ফিপরেস্কির আমন্ত্রণ পান। ২০২১ সালে কানের অফিশিয়াল সিলেকশনের অংশ আঁ সার্তে রিগায় স্থান করে নিয়ে ইতিহাস গড়ে আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ ছবিটি।

বিধান রিবেরু ২০০৫ সালে সাংবাদিকতা পেশায় যুক্ত হন।