জয়া আহসানকে জানতে চান?

বিজ্ঞাপন
default-image

বাংলাদেশ ও ভারতের বাংলা ছবির জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা জয়া আহসানকে জানতে চান? কিংবা তাঁর সব খবর? জয়া আহসানের মতে, এখন এটা কোনো ব্যাপারই না! আজ মঙ্গলবার সকালে এক ভিডিও বার্তায় সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

এই ভিডিও বার্তায় জয়া আহসান তাঁর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ ফলো করার জন্য সবাইকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘নতুন বছর অনেকেই নতুনভাবে অনেক কিছু শুরু করবেন। আমিও আপনাদের সঙ্গে নিয়ে নতুন কিছু করার কথা ভাবছি। এত দিন আপনারা বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম থেকে আমার সব তথ্য পেয়েছেন। এ বছর আপনাদের সঙ্গে আমি সরাসরি যুক্ত থাকব আমার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ নিয়ে। এখানে আমি, আমার কাজ—সবকিছু দ্রুত পাবেন। থাকবে সব এক্সাইটিং আপডেট, প্রতিক্রিয়া, লাইভ, আলোকচিত্র, ভিডিও, ব্যক্তিগত ও পারিবারিক নানা তথ্য। এটি ছোট কিন্তু আন্তরিক প্রচেষ্টা আপনাদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করার জন্য। সুতরাং আসুন, একটি সুন্দর যাত্রা একসঙ্গে শুরু করা যাক।’

জয়ার মতে, ২০১৭ সাল তাঁর জন্য একটি সফল বছর। গত বছর তাঁর স্বীকৃতির শুরু হয় টিভি চ্যানেল এবিপি আনন্দ প্রবর্তিত ‘সেরা বাঙালি পুরস্কার’ দিয়ে, জুলাই মাসে। আর শেষ হয়েছে ‘জি সিনে অ্যাওয়ার্ডস’-এর মধ্য দিয়ে, ডিসেম্বরে। এই দুটি সম্মাননাই নয়, জয়ার ঝুলিতে গত বছর জুটেছে আরও অনেক পুরস্কার—হায়দরাবাদ চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী, ‘ইন্টারন্যাশনাল বাঙালি ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড’-এ শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী, যুক্তরাষ্ট্রের ‘ক্যালাইডস্কোপ ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’-এ শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী। ভারতের গোয়াতে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শনীর পর যখন দর্শকের ‘স্ট্যান্ডিং অ্যাভিয়েশন’ লাভ করে ‘বিসর্জন’, সেখানেও ঘুরেফিরে এসেছে ছবির চরিত্র পদ্মার (জয়া আহসান) নাম। গত বছর ‘আনন্দবাজার’ পত্রিকা টালিউড নায়িকাদের নিয়ে যে শীর্ষ তালিকা তৈরি করেছে, সেখানে জয়া আহসান সবার চেয়ে এগিয়ে। অনিমেষ আইচ পরিচালিত বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ‘জিরো ডিগ্রিতে’ অভিনয় করে ২০১৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে জয়া গ্রহণ করেছেন গত বছর।

জানালেন, নতুন বছরের শুরুতে বাংলাদেশ ও ভারতে তাঁর অভিনীত দুটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। বাংলাদেশে ৫ জানুয়ারি মুক্তি পাবে সাইফুল ইসলাম মাননু পরিচালিত ‘পুত্র’ আর ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ১২ জানুয়ারি ‘আমি জয় চ্যাটার্জি’। ‘আমি জয় চ্যাটার্জি’ থ্রিলার ছবি। ‘গোয়েন্দা শবর’ সিরিজের দ্বিতীয় চলচ্চিত্র। পরিচালক মনোজ মিশিগান। ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আবির চট্টোপাধ্যায়। আবির আর জয়া এর আগে ‘আবর্ত’, ‘রাজকাহিনী’ ও ‘বিসর্জন’ ছবিতে অভিনয় করেছেন। ‘আমি জয় চ্যাটার্জি’ এই জুটির চতুর্থ ছবি।

অটিস্টিক শিশুদের নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘পুত্র’ ছবিটি। সমসাময়িক খুব গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা নিয়ে তৈরি এই ছবিতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। সত্য ঘটনা অবলম্বনে ছবির কাহিনি, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন হারুন রশীদ। তথ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের প্রযোজনায় চলচ্চিত্রটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে আছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড। জয়া বললেন, ‘এখানে সবার জন্য কিছু বার্তা আছে, আবার বিনোদনও আছে।’

বাংলাদেশের ‘ভাওয়াল সন্ন্যাসী মামলা’ নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করছেন কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। এই ছবিতে ‘ভাওয়াল সন্ন্যাসী’ রমেন্দ্র নারায়ণের বোনের চরিত্রে অভিনয় করবেন জয়া আহসান। ছবির নাম ‘এক যে ছিল রাজা’। চিত্রনাট্য লিখেছেন সৃজিত নিজেই। এতে রাজকুমার রমেন্দ্র নারায়ণের চরিত্রে অভিনয় করবেন টালিগঞ্জের যিশু সেনগুপ্ত। এ মাসের গোড়ার দিকে ছবিটির শুটিং করবেন জয়া।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন