চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির ১ নম্বর সহসভাপতি মনোয়ার হোসেন ডিপজল। তিনিও এবার পদত্যাগ করছেন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে লড়বেন ডিপজল। আগামী ২১ মে নির্বাচন। এরই মধ্যে তিনি মনোনয়নও জমা দিয়েছেন। এই নির্বাচনে অংশ নেবেন, তাই শিগগিরই শিল্পী সমিতি থেকে পদত্যাগ করবেন বলে জানালেন তিনি।

default-image

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির গঠনতন্ত্রের ৯ নম্বর অনুচ্ছেদের (ত)-এ বলা আছে, ‘শিল্পী সমিতির কোনো পূর্ণ সদস্য চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট অন্য কোনো সমিতির কার্যকরী পরিষদের সদস্য থাকিলে অত্র সমিতির কার্যকরী পরিষদের কোনো পদের জন্যই তিনি যোগ্য বলিয়া বিবেচিত হইবেন না।’ এ ব্যাপারে কিছুদিন আগে ডিপজল বলেছিলেন, ‘আমি এই নিয়ম জানতাম না। জানলে প্রযোজক পরিবেশক সমিতির নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দেওয়ার আগেই শিল্পী সমিতিতে পদত্যাগপত্র জমা দিতাম। এখন যখন জানলাম, যত তাড়াতাড়ি পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া যায়, দিয়ে দিচ্ছি।’

এদিকে পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার ব্যাপারটি এখনো জানেন না শিল্পী সমিতির সহসাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাঁর সঙ্গে যখন কথা হয়, তখন এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘ডিপজল ভাই প্রযোজক সমিতির নির্বাচন করবেন। মনোনয়নও জমা দিয়েছেন। কিন্তু সেখানে নির্বাচন করলে তো গঠনতন্ত্র মোতাবেক শিল্পী সমিতির পদে থাকতে পারবেন না। আগেই পদত্যাগ করতে হবে। শুনেছি তিনি পদত্যাগ করবেন। কিন্তু এখনো সে ব্যাপারে কোনো আলোচনা বা কোনো আবেদন আমাদের কাছে আসেনি।’

default-image

আজ এ বিষয়ে ডিপজলের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাঁর ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে তাঁর ঘনিষ্ঠজন জানিয়েছেন, তিনি এখন একটু অসুস্থ। চিকিৎসা নিতে হুট করেই দেশের বাইরে গেছেন। তাড়াতাড়ি চলে আসবেন। আমাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। এসেই পদত্যাগপত্র জমা দিয়ে দেবেন।’

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন