বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শুক্রবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন সারা আফরীন। সেখানে অন্যদিনের লোগোর নিচে আরও চারটি ছবিমেলার লোগো, যেগুলো যুক্ত হবে ‘অন্যদিন...’ ছবির মূল পোস্টারে। লোকার্নো ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ওপেন ডোরস, কানসের সিনে ফাউন্ডেশন, সান ড্যান্স ও সর্বশেষ ইডফার। সারা লিখেছেন, ‘সানড্যান্স, লোকার্নো, কান এবং সর্বশেষ ইডফা— চারটি টপ ফেস্টিভ্যাল লোগো শুধু বাংলাদেশ নয় দক্ষিণ এশিয়ার আর কয়টা ছবিতে আছে জানি না!’কামার আহমাদ

default-image

‘অন্যদিন...’ ছবির পোস্টারের কাজ চলছে। পোস্টারের দিকে তাকিয়ে খেয়াল করলাম, ওয়ার্ল্ড টপ টেন ফেস্টিভ্যাল লিস্টের চারটিই আছে আমাদের এই ছবিতে। ‘সানড্যান্স’-এর গ্র্যান্ট অ্যাওয়ার্ড, লোকার্নো হাবের ‘সেরা প্রজেক্ট’, কান-এর লা’এতেলিয়ারে পৃথিবীর অন্যতম সম্ভাবনাময় ছবি হিসেবে আমন্ত্রণ এবং সর্বশেষ ইডফার আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় নির্বাচন-২০১৩ থেকে ৮ বছরের নিভৃতযাত্রায় আমাদের আশার রসদ ছিল এই লোগোগুলো। শুধু বাংলাদেশ নয়, দক্ষিণ এশিয়ার আর কয়টা ছবির ক্ষেত্রে এই অনন্য সম্মাননা জুটেছে আমরা জানি না। তবে আমি বলব এটা ‘অন্যদিন...’-এর সবার নিবেদিত কাজের ফসল।’

default-image

‘অন্যদিন...’ ছবির পোস্টারের পাশাপাশি চলছে ডিসিপির কিছু কারিগরি সংশোধনী। চলতি মাসের ১৯ তারিখে প্রযোজক-পরিচালক উপস্থিত হবেন নেদারল্যান্ডসের আমস্টারডামে। পরের দিন শনিবার রাত ৯টায় আমস্টারডামের তুসানস্কি থিয়েটারে বিশ্ব অভিষেক হবে ‘অন্যদিন...’ ছবির। কেমন লাগছে কামার আহমাদ সাইমনের? তিনি বলেন, ‘শেষ মুহূর্তের কাজগুলো নিয়ে একটু দৌড়ঝাঁপ চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আমরা ১৯ তারিখ আমস্টারডামে থাকব। ছবিটা সেখানকার বড় প্রেক্ষাগৃহে চালিয়ে ডিসিপিতে কিছু কারিগরি ত্রুটি পাওয়া গেছে। সেসব সংশোধনের কাজ চলছে। আমরা এখন কোভিড টেস্ট করে সময়মতো রিপোর্ট হাতে পাওয়া নিয়ে ভাবছি।’

এ বছরের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা বিভাগে শ্রেষ্ঠ নন–ফিকশন ফিচার ছবির মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কারের দৌড়ে আছে ফ্রান্স, রাশিয়া, জার্মানি, ইতালি, নেদারল্যান্ডস, আর্জেন্টিনা ও পর্তুগালসহ মোট ২১ দেশের ১৪টি ছবি। যার মধ্যে কামারের ‘অন্যদিন’ অন্যতম। এটি পুরস্কারের জন্য লড়বে ইউখরেনিয়ান নির্মাতা সার্গেই লজনিতসা, পর্তুগিজ নির্মাতা সুজানা ডি সুজা ডিয়াজ, রুশ নির্মাতা আলিওনা ভন দার হোস্টের মতো আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত ও পুরস্কৃত নির্মাতাদের নতুন সব ছবির সঙ্গে। নভেম্বরের ২৫ তারিখে আমস্টারডামের বিখ্যাত আই ফিল্ম মিউজিয়ামে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে ঘোষণা করা হবে পুরস্কার। ‘অন্যদিন...’ হয়তো সেদিন সারা-কামারদের জন্য বয়ে আনবে অন্যরকম একটি দিন।

উল্লেখ্য, কামার আহমাদ সাইমনের জলত্রয়ীর (ওয়াটার ট্রিলজির) দ্বিতীয় ছবি ‘অন্যদিন...’। নরওয়ে ও ফ্রান্সের যৌথ প্রযোজনায়, বাংলাদেশের এ ছবির সম্পাদনা ও কালার কারেকশন করা হয়েছে কলকাতায় আর মুম্বাইতে হয়েছে সাউন্ড মিক্সিং। ২০১৩ সালে শুরু করে ৮ বছর ধরে বানানো হয় এ ছবি। ২০১৭ সালে শুটিং শেষে সম্পাদনার টেবিলে ফেলে ‘শিকলবাহা’ ছবির কাজ শুরু করেন তিনি। পরে করোনায় আবার শুরু হয় ‘অন্যদিন...’ ছবির বাকি কাজ।

default-image

জলত্রয়ীর প্রথম ছবি ছিল ‘শুনতে কি পাও!’ আন্তর্জাতিক উৎসব অঙ্গনে বাংলাদেশের একটি আলোচিত ছবি। লোকার্নোর ওপেন ডোরসের উদ্বোধনী এবং প্রাচীনতম প্রামাণ্য উৎসব ডক-লাইপজিগের উদ্বোধনী ছবি হিসেবে প্রদর্শিত হয়েছে এটি। পেয়েছে প্যারিসে গ্রাঁ প্রি, মুম্বাইয়ে স্বর্ণশঙ্খ, শ্রেষ্ঠ সিনেমাটোগ্রাফিসহ আরও অনেক আন্তর্জাতিক সম্মাননা ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ‘অন্যদিন...’-এর চিত্রনাট্যের জন্য ২০১৬ সালে বিশ্ব চলচ্চিত্র মঞ্চ পিয়াৎজা গ্রান্দার রেড কার্পেট ডিরেক্টরের সম্মাননা পেয়েছিলেন কামার, সেই সঙ্গে লোকার্নোর ওপেন ডোরসের শ্রেষ্ঠ পুরস্কার এবং আর্তে ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ। কোনো উৎসব ছাড়াই এ বছর চলতি বছরের ৮ আগস্ট দেশের অন্যতম প্রধান স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম ‘চরকি’তে মুক্তি পায় কামারদের ছবি ‘নীল মুকুট’।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন