default-image

অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির সেদিন মন খারাপ ছিল। নিজের গাড়িটা নিয়ে বেড়াতে বের হয়ে যান তিনি। গন্তব্য রাজশাহী শহর থেকে গ্রামের দিকে। ইচ্ছা ছিল চোখ ভরে একটু প্রকৃতি দেখবেন। সে রকম পরিকল্পনা নিয়েই ঘুরতে বের হন তিনি। পথেই দেখা হয়ে যায় এক কৃষকের সঙ্গে, যিনি বাঁধাকপি নিয়ে বাজারে বিক্রির উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। বয়স্ক মানুষটাকে দেখে তাঁর মন আরও খারাপ হয়। রিকশা ভ্যান থেকে সব কটি বাঁধাকপি কিনে বয়স্ক বিক্রেতার মন ভালো করে দেন মাহি। অন্যের মুখে হাসি ফুটলে তাঁর নিজেরও মন ভালো হয়ে যায়।

default-image

মাহির ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখে অনেকেই জেনেছেন, ১০০টি বাঁধাকপি কিনেছেন তিনি। কিন্তু এ রকম ঘটনা এবারই প্রথম নয়। আগেও ফেরিওয়ালাদের কাছ থেকে সব পণ্য কিনে নিয়েছেন মাহি। মন খারাপ হলে এমন কাজ আগেও করেছেন তিনি। সেসবের মধ্যে ছিল চুড়ি, গলার মালা, ঝুড়িসহ আরও অনেক কিছু। তিনি জানান, একবার মন খারাপ নিয়ে গুলশানে ঘুরছিলেন তিনি।

default-image
বিজ্ঞাপন

এক সিগন্যালে দেখতে পান, একজন অনেকগুলো ঝুড়ি নিয়ে বসে আছেন। ওই ঝুড়িওয়ালার কাছ থেকে সব কটি ঝুড়ি কিনে নেন তিনি। অতগুলো ঝুড়ি দেখে তাজ্জব হয়ে যান মাহির মা।

default-image

তিনি বলেন, ‘মন খারাপ হলে আমি কারও না কারও সাহায্যে এগিয়ে যাই। আমাকে দিয়ে যদি কারও উপকার হয়, তাতে আমি শান্তি পাই।’ একবার পথশিশুদের ১০০ হাওয়াই মিঠাই কিনে দিয়েছিলেন। সেদিনের শিশুগুলোর আনন্দের ছবি আজও তাঁর চোখে ভাসে। আরেকবার কক্সবাজারের সমুদ্রসৈকতে এক কিশোরী কানের দুল ও গলার মালা বিক্রি করছিল। সারা দিন তেমন কিছু বিক্রি হয়নি বলে মন খারাপ করে ছিল সে। মাহি তার কাছ থেকে সবকিছু কিনে তাকেই উপহার দিয়েছিলেন। সম্প্রতি কেনা ১০০ বাঁধাকপি কী করলেন, জানতে চাইলে মাহি বলেন, ‘কিছু রান্না করেছি, কিছু বাড়ির চারপাশের সবাইকে বিলিয়ে দিয়েছি। যদিও এখানকার মানুষেরা এখন আর এগুলো খায় না। সেসব গরু-ছাগলকে খাইয়েছেন।’

একবার মন খারাপ নিয়ে গুলশানে ঘুরছিলেন তিনি। এক সিগন্যালে দেখতে পান, একজন অনেকগুলো ঝুড়ি নিয়ে বসে আছেন। ওই ঝুড়িওয়ালার কাছ থেকে সব কটি ঝুড়ি কিনে নেন তিনি। অতগুলো ঝুড়ি দেখে তাজ্জব হয়ে যান মাহির মা
default-image

সম্প্রতি মাহি শেষ করেছেন ‘লাইভ’ ছবির শুটিং। এ ছবিতে তাঁর সঙ্গে দেখা যাবে অভিনেতা সাইমনকে। এ ছাড়া সম্প্রতি ‘যাও পাখি বলো তারে’ নামে আরও একটি ছবিতে কাজ করেছেন এই অভিনেত্রী। ছবিটির গানের শুটিং এখনো বাকি রয়েছে। লোকেশন দেখা শেষ হলেই গানগুলোর শুটিংয়ে অংশ নেবেন তিনি। এ ছবিতে কেন্দ্রীয় পুরুষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিপন মিত্র। মাহির হাতে রয়েছে আরও বেশ কিছু ছবির কাজ। সেগুলোর মধ্যে ‘গ্যাংস্টার’ ছবির শুটিংয়ের জন্য শিগগিরই কক্সবাজার যাবেন তিনি।

default-image
বিজ্ঞাপন
ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন