শবনম বুবলী
শবনম বুবলীছবি: প্রথম আলো

গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা শবনম বুবলীকে, এমন অভিযোগ করেছেন অভিনেত্রী নিজেই। আজ শুক্রবার বিকেলে নিজের ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে এ ঘটনা জানান তিনি। ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার পরপরই বুবলীর সঙ্গে কথা হয় প্রথম আলোর। তিনি বলেন, ‘সে এক ভয়ংকর অভিজ্ঞতা। জীবনে কখনো ভাবিনি, এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। আজ হয়তো আমাকে নিয়ে অন্য রকম খবরই সবার কাছে পৌঁছাত। সবাই জানতেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আমি মারা গেছি! ’

default-image

বুবলী জানান, গতকাল শুটিং শেষে বাসায় ফেরার পথে উত্তরার জসীম উদ্‌দীন সিগন্যাল পার হওয়ার সময় এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হন তিনি। আগের দিন বুধবারও শুটিং শেষে বাসায় ফেরার পথে রাত ১১টায় এমন ঘটনা ঘটে। শুরুতে বিষয়টিকে পাত্তা না দিলেও গতকাল যখন একই ঘটনা ঘটল, তখন বিষয়টি তাঁকে ভাবিয়ে তোলে। বুবলী বলেন, ‘বাসায় ফেরার পর ঘণ্টাখানেকের বেশি সময় ধরে আই ওয়াজ শিভারিং। আম্মু-আব্বুকে ঘটনাটা বলার পরে তাঁরা রীতিমতো আঁতকে ওঠেন। পরিবারের সবাই এই ঘটনা শুনে আতঙ্কিত।’

বিজ্ঞাপন
default-image

বুবলী বলেন, ‘আব্বু–আম্মুসহ বাসার সবার সঙ্গে ঘটনাটা নিয়ে আলাপ করেছি। সবাই পরামর্শ দিয়েছেন আইনি ব্যবস্থা নিতে। আমিও সিদ্ধান্ত নিয়েছি, শুরুতে জিডি করব। এরপর বাকি পদক্ষেপ নেব।’
বুবলী তাঁর ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘সব সড়ক দুর্ঘটনা দুর্ঘটনা নয়, অনেক সময় পরিকল্পিতও হয়। তা গত দুদিনে টের পেয়েছি। উপলব্ধি করেছি, আমরা যা দেখি বা যা শুনি, তার পেছনেও অন্য এক অজানা সত্য থাকে। মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখলাম। ভাবছিলাম আজকের দিনটিতে আমাকে নিয়ে অন্য রকম সংবাদও হতে পারত। মা-বাবা, ভাই-বোনদের দোয়া আর আপনাদের ভালোবাসায় এ যাত্রায় সুস্থ আছি।’
বুবলী বলেন, ‘গত পাঁচ দিন “চোখ” নামের একটি সিনেমার শুটিং করছিলাম। শুটিং শেষে রাতে বাসায় ফেরার পথে বিপরীত দিক থেকে কোনো হর্ন না বাজিয়ে, কোনো সিগন্যাল না দিয়ে আমার গাড়ির সামনে প্রচণ্ড বেগে তেড়ে আসে একটি প্রাইভেট কার, যার গ্লাস ছিল ব্ল্যাক পেপার দিয়ে মোড়ানো। ছিল না কোনো নম্বরপ্লেট। তাৎক্ষণিকভাবে আমার ড্রাইভার হার্ড ব্রেক না করলে হয়তো অন্য কিছু হতে পারত। আমি নিজেও ড্রাইভিং জানি, তাই কোনটি দুর্ঘটনা আর কোনটি ইচ্ছাকৃত, তা বোঝার ক্ষমতা নিশ্চয়ই একজন সুস্থ–স্বাভাবিক মানুষের মতো আমারও আছে।’

default-image

ফেসবুকে পোস্টে বুবলী আরও লেখেন, ‘প্রথম দিন সব বুঝতে পেরেও মনকে সান্ত্বনা দিয়েছিলাম হয়তো বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ি এত জোরে আসার কারণে কন্ট্রোল রাখতে পারেনি। কিন্তু একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে, সেটি আর বুঝতে বাকি থাকে না যে এটি উদ্দেশ্যমূলকভাবেই করানো হচ্ছে। অনেক দিন ধরেই আমি নানাভাবে নানান কিছু বুঝতে পারছি, শুনতে পারছি। কিন্তু যাঁরাই এসব ন্যক্কারজনক অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকবেন, তাঁরাও নিশ্চয়ই বারবার সুযোগের অপেক্ষায় থাকবেন। কিন্তু মনে রাখবেন, কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন, আর আল্লাহ তো একজন আছেন, যিনি সবই দেখেন। শিগগিরই আমি আইনি ব্যবস্থা নেব।’
প্রথম আলোকে বুবলী জানালেন, ‘করোনার প্রকোপ শুরুর আগেও একবার এই ধরনের একটি ঘটনা ঘটেছিল। তখনকার ঘটনাটা ছিল একটি মাইক্রোবাস। সেই মাইক্রোবাস আমার গাড়ি চাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। ড্রাইভাবের দক্ষতায় তখনো রক্ষা পাই।’ বুবলী বললেন, ‘আমি সাধারণত গাড়িতে করে কোথাও যাওয়ার সময় ঘুমাই না। সজাগ থেকে আশপাশ দেখি। না ঘুমানোর কারণেই এমন ঘটনার সাক্ষী হতে পেরেছি। আমি ভীষণভাবে শঙ্কিত।’

বিজ্ঞাপন
default-image

লম্বা সময় চুপচাপ ছিলেন বুবলী। সে সময়ে চলচ্চিত্রের কারও সঙ্গে সামনাসামনি দেখা হয়নি খুব একটা। তবে ফোনে কারও কারও সঙ্গে কথা হতো। কেউ কেউ ছবিতে অভিনয়ের জন্য যোগাযোগ করতেন। কিন্তু ব্যাটে-বলে না মেলায় সেসব ছবিতে ‘হ্যাঁ’ করেননি এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি তিনি ‘চোখ’ নামের নতুন ছবিতে নাম লেখান। এই ছবিতে তাঁর বিপরীতে অভিনয় করছেন নিরব ও রোশান।

default-image

২১ ফেব্রুয়ারি থেকে নারায়ণগঞ্জে ছবিটির শুটিংয়ে অংশ নেন বুবলী। এর আগে ‘ক্যাশ’ নামের একটি ছবিতেও অভিনয়ের কথা শোনা গিয়েছিল বুবলীর। শেষ পর্যন্ত সম্মানী নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় ছবিটিতে অভিনয় করতে রাজি হননি বুবলী। এদিকে ‘চোখ’ সিনেমার চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করার পরপরই শাকিব খানের বিপরীতে ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ নামের আরেকটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন তিনি। তপু খান পরিচালিত ছবিটির শুটিং মার্চের শেষ সপ্তাহে শুরু হবে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন