default-image

কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করবে—এমন একটি লাল মোরগ খুঁজছেন পরিচালক নূরুল আলম আতিক। সেই মোরগ অভিনয় করবে তাঁর নতুন চলচ্চিত্র লাল মোরগের ঝুঁটিতে। চলচ্চিত্রটি নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যে পেয়েছেন সরকারি অনুদান। মুক্তিযুদ্ধের গল্প নিয়ে নির্মিত ছবিটির চিত্রনাট্যও লিখেছেন তিনি। মূল গল্পের ভাবনাটা মুক্তিযোদ্ধা ও নাট্যব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফের।
পরিচালক বললেন, ‘এই সিনেমায় কারা অভিনয় করবেন, সেটি এখনো ঠিক করা হয়নি। তবে একটি ঝুঁটিওয়ালা লাল ফাইটার মোরগ থাকবে। তাকে দিয়েই শুরু করেছি। গল্পটি খুবই সুন্দর। এই সিনেমায় মুক্তিযুদ্ধকে একেবারেই অন্যভাবে তুলে ধরা হবে।’
বেশ কয়েক বছর সিনেমা, টেলিভিশন থেকে দূরে আছেন নূরুল আলম আতিক। এর আগে তিনি নির্মাণ করেন পূর্ণদৈর্ঘ্য ছায়াছবি ডুব সাঁতার। তাও প্রায় সাত বছর আগের কথা। তারপর কেন এই দীর্ঘ বিরতি—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ডুব সাঁতার-এর পর একরকম হতাশায় ডুবে গিয়েছিলাম। নিজ উদ্যোগে ঢাকার বাইরে দেখানো শুরু করেছিলাম ছবিটি। তখনো ডিজিটাল প্রজেকশন পদ্ধতি চালু হয়নি বলে ভীষণ ঝামেলা পোহাতে হয়েছিল।’
টেলিভিশনের জন্য ২০১৩ সালে নূরুল আলম আতিক নির্মাণ করেন ৭৮ পর্বের ধারাবাহিক নাটক জাদুর শহর। চিত্রনাট্যে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও মেরিল–প্রথম আলো সমালোচক পুরস্কারপ্রাপ্ত নূরুল আলম আতিক বলেন, ‘সিনেমা বানানোর খরচটা এখন অনেক। সরকারি অনুদানের টাকায় এই সিনেমা শেষ করা যাবে না। এটি শেষ করতে অনুদানের থেকে চার গুণ বেশি অর্থ ব্যয় হবে। তাই ভালো প্রযোজকও খুঁজছি। ভালো ছবি নির্মাণে অনেকেই এগিয়ে আসতে চান। আশা করছি, এই ছবির জন্য একাধিক ভালো প্রযোজক পাওয়া যাবে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0