বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এবার সেরা অভিনেত্রী শাখায় মনোনয়ন পান ইসরায়েল, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াসহ পাঁচ দেশের অভিনেত্রীরা। তাঁদের মধ্য থেকে পুরস্কার পাওয়ার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বাঁধন বলেন, ‘এর চেয়ে আনন্দের আর কিছু নেই আমার কাছে। এ আনন্দ আমি বলে বোঝাতে পারব না। অনেক বড় একটা ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে গেলাম। এ অর্জন পুরো টিমের জন্য। বিশেষ করে নির্মাতা সাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। খুশিটা আমার জন্য আরও বেশি। কারণ, ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তির আগের দিন এ সুসংবাদ পেলাম।’

default-image

অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের গোল্ড কোস্ট শহরে বসে অ্যাপসার ১৪তম আসর। সেখানেই গতকাল বৃহস্পতিবার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। এবার এতে অংশ নেয় এশিয়ার ২৫টি দেশ। চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছিল ৩৮টি সিনেমা। ১১টি দেশের ১০টি সিনেমাকে দেওয়া হয় পুরস্কার। এশিয়া প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডসে সেরা সিনেমা হয়েছে জাপানের রিয়ুসুকে হামাগুচি পরিচালিত ‘ড্রাইভ মাই কার’। ‘রেহানা’ ছবির জন্য জুরি গ্র্যান্ড প্রাইজ পেয়েছেন পরিচালক আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন