default-image

পর্দায় শাকিব খানকে দেখামাত্র দর্শকদের হর্ষধ্বনি! একেকটি অ্যাকশন কিংবা রোমান্টিক দৃশ্যে চিৎকার, শিস। দর্শকদের এই উল্লসিত চিৎকার থেকে ঢাকাই ছবির নায়ক শাকিব খানের জনপ্রিয়তা সম্পর্কে কিছুটা অনুমান করা যায়।
ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খান অভিনীত সিনেমা ‘রাজাবাবু-দ্য পাওয়ার’। ছোটবেলা থেকে এতিমখানায় বড় হওয়া রাজা ২৫ বছর বয়সে হয়ে যায় রাজাবাবু। নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হয় তাঁকে। ফলে এ ছবিতে রক্তপাতের ছড়াছড়ি। ঢাকাই সিনেমার চিরাচরিত অ্যাকশন দৃশ্যগুলোও বাদ যায়নি। তবে, সামান্য কিছু নতুনত্ব যে যুক্ত হয়নি তা-ও বলা যাবে না। আর রোমান্টিক সংলাপেও আছে কিছুটা সমসাময়িকতার ছোঁয়া।
‘রাজাবাবু-দ্য পাওয়ার’ ছবির গানগুলোর কথা সুর কিংবা কোরিওগ্রাফিতে প্রচলিত ধারা থেকে খুব বেশি বের হয়ে আসার চেষ্টা দেখা যায়নি। ফলে বিনোদনটাও আগের মতো।
নাচ-গান-অ্যাকশন-রোমাঞ্চে ভরপুর এই সিনেমাটি এবারের ঈদ বিনোদনের কড়া টোটকা। নিয়মিত যারা হলে গিয়ে সিনেমা দেখেন, তারা একবাক্যে স্বীকার করবেন সেটি। কেননা, ছবিটিতে একেবারে পরিপূর্ণ বিনোদনের ব্যবস্থাই রেখেছেন নির্মাতারা।
আর দর্শকদের ভালো লেগেছে কিনা? সিনেমা হল থেকে ফেরার পথে কোনো দর্শকের মুখে হয়তো শোনা যেতে পারে—‘নো কমিটমেন্ট, নো অ্যাপয়েন্টমেন্ট, ওনলি পানিশমেন্ট’ সংলাপটি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0