সিয়াম সব কটি কাগজে শুধু আমারই নাম লিখেছিল: পরীমনি

‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবির সেটে পরীমনি-সিয়াম।
‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবির সেটে পরীমনি-সিয়াম। সংগৃহীত
বিজ্ঞাপন

সহশিল্পীদের মধ্যে একটু দুষ্টুমি, একটু খুনসুটি তো হয়েই থাকে। এটাই বাড়ায় কাজের আনন্দ। আর অভিনেতা সিয়াম আহমেদ হলেন দারুণ ফুর্তিবাজ। কাজের ফাঁকে আনন্দ–হাসিঠাট্টায় মশগুল রাখেন চারপাশ।

‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’-এর সহশিল্পী পরীমনির সঙ্গেও তাঁর হাসিঠাট্টার অন্ত নেই। পরীও কম যান না। ফেসবুকে চোখ রাখলেই তাঁদের খুনসুটিতে ভরা রসায়নের ব্যাপারে জানা যায়। এই যেমন গত শুক্রবারের কথাই ধরা যাক। সিয়ামকে ‘ক্লিকবাজ’ বলে দিলেন পরীমনি!

না, নেতিবাচক অর্থে ‘ক্লিকবাজ’ বলা হয়নি সিয়ামকে। নিছকই ঠাট্টার ছলে এই সম্বোধন। ফেসবুকে ১১ সেপ্টেম্বর পোস্ট করা একটি ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লিখেছেন কথাটি। ছবিটি তুলেছেন সিয়াম। তাই ছবি ‘ক্লিক’ করার কারিগর হিসেবে সিয়ামকে ‘ক্লিকবাজ’ বলা।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
‘সিয়াম ঝামেলায় ফেলে দিয়েছে! আজ আমার ডেঅফের দিনেও আমাকে রাঁধতে হচ্ছে। কাল শুটিংয়ের পর সিয়াম অনেকগুলো কাগজে নাম লিখে বলেছে লটারি করছিল। বলেছিল যার নাম উঠবে, সে সেটের সবার জন্য রেঁধে আনবে। সেখানে আমার নাম ওঠে। পরে জানতে পারলাম সিয়াম সব কটি কাগজে শুধু আমারই নাম লিখেছিল।’
পরীমনি

সিয়াম আহমেদ ও পরীমনি এখন ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবির শুটিং করছেন। করোনাকালের সঙ্গনিরোধের বিরতি শেষ করে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে এই ছবির শুটিং আবার শুরু হয়। খুলনায় শুরু হওয়া শুটিং ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলে একটানা। এরপর ঢাকায় ফিরে ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আজ রোববার পর্যন্ত ঢাকার এফডিসিতে চলে শুটিং। পরিচালক আবু রায়হান জানান, আগামীকাল থেকে শেরপুরে হবে ছবির গানের দৃশ্যায়ন। এরপর শেষ হবে শুটিং।

default-image

সিয়ামের ‘ক্লিকবাজি’র কথা শুনতে কথা হয় পরীমনির সঙ্গে। ফোন করে জানা যায় তাঁদের আরও কিছু খুনসুটির কথা। ফোনের ওপাশ থেকে পরী বলেন, ‘সিয়াম ঝামেলায় ফেলে দিয়েছে! আজ আমার ডেঅফের দিনেও আমাকে রাঁধতে হচ্ছে। কাল শুটিংয়ের পর সিয়াম অনেকগুলো কাগজে নাম লিখে বলেছে লটারি করছিল। বলেছিল যার নাম উঠবে, সে সেটের সবার জন্য রেঁধে আনবে। সেখানে আমার নাম ওঠে। পরে জানতে পারলাম সিয়াম সব কটি কাগজে শুধু আমারই নাম লিখেছিল।’

পরীর হেঁশেলে আজ রান্না হলো ঝাল ঝাল গরুর মাংস আর আতপ চালের ভাত। তাই এই প্রস্তুতির জন্য ছুটির দিনেও বেলা ১১টা থেকে কোমর বেঁধে রান্নাঘর দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। পরী বলেন, ‘এত মানুষের জন্য রান্না এর আগে করিনি। নার্ভাস লাগছে।’ আজ শুটিংয়ে মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে সেটের সবার জন্য খাবার নিয়ে যাবেন পরী।
default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরীর হেঁশেলে আজ রান্না হলো ঝাল ঝাল গরুর মাংস আর আতপ চালের ভাত। তাই এই প্রস্তুতির জন্য ছুটির দিনেও বেলা ১১টা থেকে কোমর বেঁধে রান্নাঘর দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। পরী বলেন, ‘এত মানুষের জন্য রান্না এর আগে করিনি। নার্ভাস লাগছে।’ আজ শুটিংয়ে মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে সেটের সবার জন্য খাবার নিয়ে যাবেন পরী। এরপর দুপুরে উদরপূর্তি করে আড্ডা জমাবেন সবাই। আড্ডা শেষে বিকেলে বাড়ি ফিরে ব্যাগপত্র গুছিয়ে ছুটবেন শেরপুরের উদ্দেশে। সেখানেই হবে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’-এর শেষ দুই দিনের কাজ। তারপর কাঙ্ক্ষিত সেই ক্ষণ—‘প্যাকআপ’।

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন