বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

তিনি জানান, ছবিটি ঘিরে তাঁর অনেক স্মৃতি। সেই স্মৃতিকে তুলে রাখতেই মেয়ের নাম দিয়েছেন ‘পদ্মা’। পদ্মাকে সঙ্গে নিয়েই ছবিটি দেখতে এসেছেন। তিনি বলেন, ‘পদ্মার জন্মের আগে ও পরের অনেক স্মৃতি এই ছবির সঙ্গে মিশে আছে। তা ছাড়া শুটিং থেকে শুরু করে সিনেমাটির মুক্তি পর্যন্ত—মনে হয় যেন আমি এখনো সিনেমার মধ্যেই আছি। এ কারণেই প্রথম শোতেই পদ্মাকে নিয়ে হাজির হয়েছি।’

সাদিয়া মাহি জানালেন, প্রায় ২০ দিন পর পদ্মা বের হয়েছে। শুধু মায়ের সিনেমার কারণে তাঁর বের হওয়া। কথা প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘চিকিৎসকেরা বলেছিলেন ৮ অক্টোবর তাঁর সন্তানের ভূমিষ্ঠ হওয়ার তারিখ। সেদিনই ছবি মুক্তির তারিখ। যদিও ২০ দিন আগেই সন্তান পৃথিবীর আলোর মুখ দেখেছে।’

default-image

সিনেমায় কৈশোরে পদ্মাপারের ময়না সংসার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ময়নার নাম পাল্টে হয় গোলাপি। একসময় সে অন্তঃসত্ত্বা হন। কিন্তু সমাজ তাকে জায়গায় দেয় না। ময়না বা গোলাপি ফিরে যায় সেই কৈশোরের নদীর কাছে। নদীকে মা বলে সম্বোধন করে। নদীর সঙ্গে কথা বলে। এভাবেই দিন কাটে তার। একদিন এক মেয়েসন্তান জন্ম দিয়ে পদ্মা নদীতে আত্মহুতি দেয়।

পদ্মাপারের এক গ্রামের কিছু মানুষ ভেলায় ভাসানো বাচ্চাটিকে পায়। বাচ্চার নাম দেওয়া হয় পদ্মা। গোলাপির সেই পদ্মার নামেই বাস্তবের মাহি তাঁর প্রথম সন্তানের নাম রেখেছেন পদ্মা।

default-image

রশিদ পলাশের পরিচালনায় সিনেমাটিতে আরও অভিনয় করেছেন শম্পা রেজা, প্রসূন আজাদ, সুমিত সেনগুপ্ত, কায়েস চৌধুরী, জয়রাজ প্রমুখ। পরিচালকসহ ছবির শিল্পীদের অনেকেই হাজির ছিলেন শুক্রবারের প্রদর্শনীতে। আজ শনিবার ‘পদ্মাপুরান’ টিম ঘুরেছে রাজধানীর অন্য মাল্টিপ্লেক্সে।

ঢালিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন