default-image

এই অস্থির সময়ে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানটুকু যেন দুদণ্ড শান্তি ধরে রেখেছে। টিএসসির মোড় থেকে কিংবা দোয়েল চত্বর থেকে সেদিকে এগিয়ে গেলে মাইকে শোনা যাবে গান কিংবা নাটকের সংলাপ। শহরের এই অংশটুকু তরুণদের দখলে। এমনকি যেকোনো বয়সের মানুষ এই দিকটায় এলে তরুণ হয়ে ওঠে। প্রাণোচ্ছল আড্ডা আর বইমেলায় ঘুরতে আসা দর্শনার্থী মিলে উত্সবের পরিবেশই বলা চলে এটাকে।
সোহরাওয়ার্দীর মূল মঞ্চে চলছে মাসব্যাপী সাংস্কৃতিক উত্সব। শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজনটি করেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী।
১ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে আজ এ উত্সবের ১৬তম দিন। বিকেল সাড়ে চারটা থেকে শুরু হয়ে চলছে প্রতিদিনই। দেখানো হচ্ছে সহিংসতাবিরোধী পথনাটক কিংবা বৈচিত্র্যময় বিষয় নিয়ে মঞ্চনাটক। কখনো বা দলীয় নৃত্য। তবে বিকেলের দিকে এই মঞ্চের দর্শকসংখ্যা বেশ কম। মঞ্চ লাগোয়া বইমেলাটা ঘুরে, বই কিনে খানিকটা ক্লান্ত পায়ে দর্শকেরা সন্ধ্যায় এসে বসছেন এখানে। আর উঠতে পারছেন না। উপভোগ করছেন অন্তত একটি নাটক।
গত শনিবার কথা হলো মেলায় ঘুরতে আসা এক তরুণ দম্পতির সঙ্গে। হাবিবাহ নাসরিন ও নওশাদ জামিল দুজনই ব্যাংকার। কাজ করছেন বেসরকারি দুটি ব্যাংকে। এসেছিলেন মূলত বইমেলায়। দুদণ্ড বসলেন এক প্যাকেট বাদাম নিয়ে। বললেন, ‘বাদাম শেষ হলো, নাটকটা শেষ না করে উঠি কী করে! আবার তো কাল থেকে ব্যস্ততা।’
আজ বিকেলে আবদুল হালিম আজিজের রচনা ও নির্দেশনায় দৃষ্টিপাত নাট্যদল পরিবেশন করবে নাটক আলোর মিছিল জ্বালো। আগামীকাল থাকছে মমতাজউদদীন আহমদের রচনা ও নির্দেশনায় মৈত্রী থিয়েটারের নাটক বর্ণচোরা।

default-image


আরেকটু আগের কথা বলি। ভালোবাসা দিবসের বিকেলে অপেরা পরিবেশন করে নাটক বউ। অপেরার মুখপাত্র অপু আমান জানালেন, অনেক দর্শক এসেছিলেন নাটকটি উপভোগ করতে।
আয়োজন সহযোগী বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের অর্থ সম্পাদক মীর জাহিদ জানালেন, হরতাল-সহিংসতার প্রভাব এই মঞ্চে নেই। পথনাটকগুলোয় দর্শকদের উপস্থিতি ও সাড়া ইতিবাচক।
পথনাটকের পাশাপাশি মঞ্চনাটক পরিবেশন করছে লোক নাট্যদল, মহাকাল নাট্যসম্প্রদায়, নাট্যতীর্থ, নাট্যধারা, প্রাচ্যনাট, সাত্ত্বিক, পদাতিকসহ বেশ কয়েকটি দল। মঞ্চের এক পাশে নিয়মিত উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে মাদকাসক্ত গুটিকয় তরুণকে। আয়োজকেরা জানান, সন্ধ্যার পর সেখানে আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবু তারা জায়গাটা থেকে নড়ছে না। তবে কোনো ক্ষতিও করছে না।

বিজ্ঞাপন
নাটক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন