default-image

মহানগর প্রজেক্টের বাসায় আসার পর নতুন যুক্ত হয়েছে পিয়ানো। কেনা হয়েছে মাস দেড়েক আগে। ন্যান্সি এখন পিয়ানো শিখছেন। শিক্ষক রোমেল আলী। মায়ের সঙ্গে পিয়ানো শিখছেন ন্যান্সির বড় মেয়ে রোদেলা।

ন্যান্সি বললেন, ‘পিয়ানো শিখব, এমনটা অনেক দিন থেকেই ভাবছিলাম। এখন ইচ্ছা পূরণ হচ্ছে। পিয়ানো কিন্তু আমার সংগীতচর্চাকে আরও সমৃদ্ধ করবে।’

হ্যাঁ, ন্যান্সি এখন পুরোদমে সংগীত চর্চা করছেন। নতুন নতুন গান করছেন। এই তো কিছুদিন আগে হাবিবের সঙ্গে পর পর তিনটি ছবির গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেলও করেছেন। ন্যান্সি বললেন, ‘প্রায় বছর দুয়েক পর আমরা আবার একসঙ্গে কাজ করেছি।’

ছবিগুলো হলো মন জানে না মনের ঠিকানা, সুইটহার্ট আর সুলতানা বিবিয়ানা। সব কটি গানের সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন হাবিব। আর গানগুলোয় কণ্ঠ দিয়েছেন হাবিব ও ন্যান্সি।

শুরুতে দুষ্টু ছেলে অ্যালবামের গানগুলো ডিজিটাল প্রযুক্তিতে প্রকাশ করা হয়। মাস খানেক আগে এসেছে অডিও সিডিতে।

ন্যান্সি বললেন, ‘দুষ্টু ছেলে অ্যালবামের গানগুলো নিয়ে নিরীক্ষা করেছি। শ্রোতারা সব সময় আমার কাছ থেকে যে ধরনের গান শোনেন, এবার তা থেকে একটু অন্য রকম কিছু করতে চেয়েছি। মনে হচ্ছে, এ কাজে সফল হয়েছি। কারণ, গানগুলো শ্রোতারা শুনছেন। তাদের কাছ থেকে ইতিবাচক মন্তব্য পাচ্ছি।’

দুষ্টু ছেলে ন্যান্সির তৃতীয় একক অ্যালবাম। এর আগে বেরিয়েছে ভালোবাসা অধরা (২০০৯) ও রঙ (২০১২)। এরপর?

ন্যান্সি বললেন, ‘এবার নজরুলসংগীত নিয়ে কাজ করছি। আ​ি​ম তো শুরু থেকেই নজরুলসংগীত শিখছি।’

এদিকে দুপুরের খাবারের আয়োজন করা হচ্ছে। ন্যান্সির অনুরোধ, ‘আগে খাবার খেতে হবে, তারপর বাকি আলাপ।’

টেবিলে অনেক পদের খাবার। সব খাবারই একটু ঝাল মনে হলো। ন্যান্সি কি ঝাল খেতে পছন্দ করেন? বললেন, ‘খুব পছন্দ করি।’

: আপনি নিজেই রান্না করেন?

: হ্যাঁ, যখন তেমন ব্যস্ততা থাকে না, তখন আমিই রান্না করি। রান্নার কাজটা দারুণ উপভোগ করি।

এবার ঢাকায় সংগীত শিক্ষার প্রতিষ্ঠান গড়ার উদ্যোগ নিয়েছেন ন্যান্সি। সব ধরনের গান শেখানো হবে এখানে।

২০১৩ আর ২০১৪ সাল ন্যান্সির জন্য মোটেও ইতিবাচক ছিল না। নানা ঘটনা আর দুর্ঘটনার মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে। নানাভাবে সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন।

সেই দিনগুলোর কথা আর মনে করতে চান না ন্যান্সি। এখন নতুন দিনের স্বপ্ন দেখছেন। নতুন নতুন কাজের পরিকল্পনা করছেন। শুধু পরিকল্পনা নয়, তা দ্রুত বাস্তবায়নও করছেন।

বিজ্ঞাপন
আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন