আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এনটিভিতে প্রচারিত হবে মাহমুদ দিদারের রচনা ও পরিচালনায় নাটক দূরের পাঠশালা। এতে অভিনয় করেছেন মামুনুর রশীদ। অভিনয়জীবনের শুরুর দিকের শহীদ দিবস আর বর্তমানের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্যপূর্ণ এ দিনটির নানা রূপ নিয়ে কথা বলেছেন এই নাট্যব্যক্তিত্ব

default-image

বর্তমান সময়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন কি যথার্থভাবে আমরা করতে পারি?
আমার কাছে মনে হয়, দিবস পালন বিষয়টি আমাদের জাতিগত একটা চরিত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভাষার ব্যাপারটা একটা দিবসের মধ্যে আটকে ফেলা ঠিক নয়। আমরা যেটা করি তা হলো ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে জেগে উঠি। আবার ২১ তারিখ বিকেল নাগাদ ঘুমিয়ে পড়ি। আবার জাগি পরের বছর ২০ ফেব্রুয়ারি।
শহীদ দিবস, ভাষা দিবস, এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। সময়ের পালাবদলে এ দিনটির অনেকগুলো রূপ দেখেছেন। কোন সময়টায় একুশের চেতনা সত্যিই আমাদের তাড়া দিত বলে আপনার মনে হয়?
ষাটের দশক, ১৯৭১ ও ১৯৭২ সাল এবং ১৯৯০ সালের সময়টা আমরা সত্যিকারের একুশের চেতনা বুকে নিয়ে ফেব্রুয়ারি পালন করেছি। আমার কাছে মনে হয়, ওই সময়ের পর থেকেই বাংলা ভাষার গুরুত্ব কমতে শুরু করেছে।
তাহলে কি এখন আমাদের ভাষার চেতনা হারিয়ে গেছে?
মোটেও না। যেমন ফেব্রুয়ারি মাসজুড়ে বইমেলা চলে। বাংলা ভাষায় অসংখ্য বই প্রকাশিত হয়। এটা অনেক বড় একটা অর্জন আমাদের। তবে চাইলে আরও অনেক কিছুই আমরা করতে পারতাম।
টিভি চ্যানেলগুলো তো এই দিবস উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান এবং নাটক নির্মাণ করে।
তা ঠিক। কিন্তু সমস্যা হলো ২১ ফেব্রুয়ারি এলেই তারা একটা নাটক নির্মাণ করে দায়িত্ব শেষ করে। সারা বছর ধরে একুশ নিয়ে নাটক নির্মাণ হলে কি খুব ক্ষতি হবে?

সাক্ষাৎকার: হাবিবুল্লাহ সিদ্দিক

বিজ্ঞাপন
আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন