বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনেক দিন ধরেই ঢাকার চলচ্চিত্রে হলের সংকট। সিনেমার ব্যবসায় মন্দা। আপনার আগের দুটি সিনেমা ব্যবসাসফল হয়নি। এ অবস্থার মধ্যে সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে।

ঝুঁকি নেই, এটি কেউই বলতে পারবে না। কারণ, দেশ–বিদেশের অনেক সিনেমা মুক্তির আগে আকাশচুম্বী প্রত্যাশা থাকা সত্ত্বেও মুক্তির পর ফ্লপ হয়েছে। আবার যে ছবিতে কোনো প্রত্যাশা ছিল না, সেই ছবি সুপারহিট হয়েছে। দর্শক নিয়েছে। তবে আমি বলব, মিশন এক্সট্রিম নিয়ে ফাঁকা বুলির জায়গা নেই। ছলচাতুরি করে মানুষকে প্রেক্ষাগৃহে আনার কোনো জায়গা নেই। আমার সিনেমাজীবনে অনেক ছবিতে মেন্টালি পরিশ্রম করেছি। কিন্তু এ সিনেমার জন্য শুধু মেন্টালি নয়, শারীরিকভাবে এত পরিশ্রম করেছি, যা অন্য কোনো সিনেমায় করিনি। ছবির চরিত্র গঠনের জন্য প্রায় ৯ মাস জিমে গিয়ে নিজেকে প্রস্তুত করেছি। এ ছবির চরিত্র হয়ে উঠতে ভেতরে ও বাইরে সব ধরনের চেষ্টা করেছি। দর্শক প্রেক্ষাগৃহে গেলেই এর প্রমাণ পাবেন।

default-image

বড় বাজেটের এ ছবির বিনিয়োগ উঠে আসা নিয়ে তো একটি শঙ্কা আছে...

প্রথমত, এ ছবির যে ক্যানভাস, যে পরিধি, যে ব্যাপ্তি; একই সময়ে ছবিটি কয়েক শ হলে মুক্তি পাওয়া উচিত। কিন্তু হলের সংখ্যা তো কমে গেছে। এতে অবশ্য আমাদের হাত নেই। দ্বিতীয়ত, এর আগে হলিউডের ছবি অ্যাভেঞ্জার্স এন্ডগেম ঢাকার তিন-চারটি হলে মুক্তি দিয়ে প্রচুর আর্থিক আয় হয়েছে। দর্শক প্রেক্ষাগৃহমুখী হলে কমসংখ্যক হলে মুক্তি দিয়েও ছবি থেকে সফলতা আসতে পারে। মিশন এক্সট্রিম কমসংখ্যক হলে মুক্তি পেলেও উতরে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তা ছাড়া ছবিটি একই সঙ্গে তিনটি মহাদেশে মুক্তি পাচ্ছে। সবচেয়ে বড় কথা, ছবির ট্রেলার ও পোস্টার থেকে ভালো সাড়া পেয়েছি আমরা।

পাবনায় ‘নূর’ ছবির শুটিং চলছে। ছবির গল্প কী নিয়ে?

এখানে আমি নামভূমিকায় অভিনয় করছি। শহরতলির ছিমছাম মন্থরগতির জীবনের সাধারণ প্রেমের গল্প। এমন গল্পে, এ ধরনের চরিত্রে আমি কখনো কাজ করিনি।

default-image

পাবনায় কত দিন চলবে শুটিং?

২০ দিনের শিডিউল আছে। শুটিংয়ের দিন বাড়তে পারে। কারণ, যে এলাকা নিয়ে ছবির গল্প রচিত হয়েছে, সেই এলাকাতেই শুটিং করা হচ্ছে। গল্পের বাস্তবতা ধরে রাখতে গল্পের লোকেশন বেছে নেওয়া হয়েছে।

‘নূর’ ছবির নির্বাহী প্রযোজকও আপনি। ছবিতে অভিনয়ও করছেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি নির্বাহী প্রযোজকের দায়িত্ব পালন করা খুব চ্যালেঞ্জিং। এটি আমার প্রথম অভিজ্ঞতা। একজন নির্বাহী প্রযোজককে সবকিছু খেয়াল রাখতে হয়। এখানে প্রোডাকশনের কাজটি দেখতে হচ্ছে। পাশাপাশি নিজের চরিত্রেও রূপদান করতে হচ্ছে। একই সঙ্গে দুটি কাজ করা সহজ নয়।

default-image

‘বঙ্গবন্ধু’র শুটিংয়ের খবর কী?

বাংলাদেশ অংশের শুটিং এখন বাকি। তাহলেই শুটিংয়ের কাজ শেষ হবে। নভেম্বর ও ডিসেম্বরে আমার শিডিউল দেওয়া আছে। অক্টোবরে বাংলাদেশে শুটিং ক্যাম্প শুরু হবে।

নতুন কাজের খবর কী?

আপাতত নতুন কাজ হাতে নিচ্ছি না। আমি একই সঙ্গে একাধিক কাজ হাতে নিতে পারি না। এটি আমার জন্য বাড়তি চাপ মনে হয়। ডিসেম্বর থেকে আমার পরপর চারটি ছবি মুক্তি পাবে। মিশন এক্সটিম, নূর, বঙ্গবন্ধু ও মিশন এক্সট্রিম–২। ছবিগুলোতে তিন মেরুর তিন ধরনের চরিত্র আমার। এর মধ্যে দুটি ছবির শুটিং চলছে।

আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন