দুটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে চিত্রনায়িকা ববির। তিনটি ছবির শুটিং করোনার কারণে শুরু করতে পারছেন না। বেশ কিছু কাজের পরিকল্পনা রয়েছে সামনে। গেল বৃহস্পতিবারও একজন পরিচালক তাঁর কাছে নতুন ছবির জন্য শিডিউল চেয়েছেন। লকডাউনের এই সময়টায় কী করছেন, চলচ্চিত্র নিয়ে কী ভাবছেন—এসব নিয়েই শুক্রবার বিকেলে কথা হলো তাঁর সঙ্গে
বিজ্ঞাপন
default-image

আজকাল কীভাবে সময় কাটছে?

ঘরেই থাকছি। সিনেমা দেখছি। নাচের মহড়া করছি। জিম করছি। ইদানীং আবার গান গাইবার চেষ্টাও করছি।

নায়িকা আবার গায়িকা হতে চায় নাকি?

আমার আব্বু গান শুনতে ভীষণ পছন্দ করতেন। করোনা মহামারির আগে তিনি মারা যান। আমার নিজেরও গানের প্রতি তীব্র আগ্রহ রয়েছে। ছোটবেলায় গান শিখেছিলামও, কিন্তু কখনো প্রফেশনালি গাওয়া হয়নি। করোনার মধ্যে নতুন করে গানের ভূত মাথায় ঢুকেছে। আব্বুর জন্য হলেও একটি গান প্রকাশ করতে চাই।

বাসায় আপনার কে কে আছেন?

আমার আম্মা ও দুই বোন অস্ট্রেলিয়ায়। আমি ছোট খালার সঙ্গে থাকি। আম্মা বারবার চাইছেন, আমিও ওখানে গিয়ে সেটেল্ড হই।

default-image

তাহলে কি ধরে নেব, খুব শিগগির আপনি অস্ট্রেলিয়ায় যাচ্ছেন?

ওখানকার সরকার যখনই অ্যালাউ করবে, তখনই আমি যাব। জীবনে এত লম্বা সময় পরিবারের কাউকে চোখের সামনে না দেখে থাকিনি। দেড় বছর শুধু ভিডিও কলে কথা হয়। খুব ইচ্ছে করে, মায়ের আঁচলে মুখটা লুকিয়ে থাকি কিছুক্ষণ। মায়ের শরীরের ঘ্রাণ তো আর ভিডিও কলে পাই না। আরও মিস করছি মায়ের রান্না করা খাবার।

default-image

মায়ের হাতের কোন রান্না খুব প্রিয়?

আলু দিয়ে মুরগির একটা পদ মা খুবই ভালো রান্না করেন। সবজি তো উফ্‌। আমি তো এখন প্রায়ই বলি, তোমার তো দুই মেয়ে। আমি তো আর কেউ না। মাকে এ–ও বলি, তোমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অভিনয় পেশায় এসেছি। তোমার পছন্দের ছেলে বিয়ে করে অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ী হইনি বলে আমার ওপর রাগ করে এত দূরে! আমি যে তোমার আরেকটা মেয়ে, এটা যেন ভুলে যেয়ো না। এসব বললে মা খুব মন খারাপ করে বলেন, তুই কী বুঝবি মায়ের কষ্ট। মা হলেই বুঝতে পারবি, কেন এত টেনশন হয় মায়েদের। সিনেমার জন্য এভাবে সবাইকে ছেড়ে দেশে একা থাকব, আম্মা ভাবতেই পারেন না।

default-image

নোলক ছবির প্রযোজক সাকিব সনেটের সঙ্গে আপনার সম্পর্কের কথা ইন্ডাস্ট্রিতে চাউর। কেন আপনাদের দুজনকে নিয়ে এমন কথা হয়? আপনার অবস্থান পরিষ্কার করবেন কি?

মানুষ কী সুন্দর করে আমার জীবনটাকে রঙিন করে দিচ্ছে, আমিই জানি না! তাঁর সঙ্গে আমার একটা চমৎকার বন্ধুত্বের সম্পর্ক। তিনি আমার নানাবাড়ির দিকের পরিচিত। নোলক ছবির শুটিং করতে গিয়ে আমাদের বন্ধুত্ব গাঢ় হয়। মুখরোচক এমন কথা আমিও শুনেছি। তবে আমিও জনে জনে বিষয়টা নিয়ে কিছু বলতে চাইনি। যেখানে সবাই একটা চমৎকার বন্ধুত্বের সম্পর্ককে এভাবে দেখে, সেখানে কারও কাছে যুক্তি খণ্ডনের কিছু নেই। তিনি আমার সঙ্গে খাবারের দোকানের অংশীদারও।

default-image
বিজ্ঞাপন

নিকট ভবিষ্যতে কি আপনাদের বিয়ের কোনো সম্ভাবনা আছে?

বিয়ের ব্যাপারটা আম্মার ওপরে ছেড়ে দিয়েছি।

সিনেমার খবর বলুন।

দুটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায়। একটি ‘বৃদ্ধাশ্রম’, অন্যটি ‘নীলিমা’। নতুন চারটি ছবির শুটিংয়ের পরিকল্পনাও চূড়ান্ত। ‘ভাগীরথী’ নামের ছবির স্ক্রিপ্টটা ভীষণ পছন্দ হয়েছে। ‘রণ যোদ্ধা’ ছবিতেও চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বব স্টার থেকে ‘নায়িকা’ আর বি হ্যাপি এন্টারটেইনমেন্ট থেকেও আরেকটি ছবির শুটিং শুরুর কথা। সবকিছু করোনা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে।

default-image

এত দিন যাঁদের সঙ্গে কাজ করেছেন, তাঁদের মধ্যে কার কার সঙ্গে আপনার পর্দা–রসায়ন ভালো ছিল বলে মনে করেন?

সত্যি কথা বলতে, পর্দায় বাংলা সিনেমার দর্শকেরা আমাকে শাকিব ভাইয়ের (শাকিব খান) বিপরীতে সবচেয়ে বেশি গ্রহণ করেছেন। যখনই প্রেক্ষাগৃহে ছবি দেখতে গেছি, গানের দৃশ্য এলেই এত শিসের আওয়াজ, গানই কানে শুনতে পাই না। আমরা একসঙ্গে পাঁচটা ছবিতেই অভিনয় করেছি, প্রতিটিতে আমি দর্শকদের অসাধারণ প্রতিক্রিয়া পেয়েছি।

default-image
আলাপন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন