ড্রিউ ব্যারিমোর, ক্যামেরন ডিয়াজ ও লুসি লিউ।
ড্রিউ ব্যারিমোর, ক্যামেরন ডিয়াজ ও লুসি লিউ।সংগৃহীত

২০২০ সালে হলিউডে ঘটে যাওয়া অন্যতম আলোচিত ঘটনার মধ্যে থাকতে পারে ‘চার্লিস অ্যাঞ্জেলস’ ছবির ৩ নায়িকার পুনর্মিলনীর খবরটি। হ্যাঁ, ২০০০ সালে মুক্তি পাওয়া সফল এই হলিউড ছবির তিন নায়িকা— ড্রিউ ব্যারিমোর, লুসি লিউ ও ক্যামেরন ডিয়াজ দীর্ঘদিন পর হাজির হলেন এক অনুষ্ঠানে। আয়োজনটির নাম ‘দ্য ড্রিউ ব্যারিমোর শো’। এতে এসেই এক বিব্রতকর গল্প জানা গেল। ড্রিউ বললেন, তিনি নাকি ভুলে তাঁর গোসলখানা থেকে করা একটি ভিডিও ক্যামেরন ডিয়াজকে পাঠাতে গিয়ে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন এক ভক্তকে।

default-image
বিজ্ঞাপন

শুরুতেই বলে রাখছি, ঘটনা অত গুরুতর নয়। মার্কিন টিভি নেটওয়ার্ক সিবিএসে ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ‘দ্য ড্রিউ ব্যারিমোর শো’ শুরু হয়েছে। এই আয়োজনের প্রথম পর্বে অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ড্রিউ তাঁর ‘চার্লিস অ্যাঞ্জেলস’ সহশিল্পী ক্যামেরনের জন্য একটি ভিডিওবার্তা তৈরি করে। ভিডিওতে তিনি অনুষ্ঠানের ব্যাপারে বলেছিলেন। হাতে সময় কম থাকায় গোসলখানার ভেতরে গায়ে তোয়ালে জড়িয়েই ক্যামেরার সামনে কথা বলেছিলেন ড্রিউ। স্নানঘরের আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলতে বলতে ড্রিউ তৈরি হচ্ছিলেন তাঁর পরবর্তী মিটিংয়ের জন্য। কথা শেষ হলে ভিডিওটি ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে ক্যামেরন বরাবর পাঠিয়ে দেন এই ৪৫ বছর বয়সী ‘ফিফটি ফার্স্ট ডেট’-এর নায়িকা।

default-image
বিজ্ঞাপন

কিন্তু ২ দিন পেরিয়ে যাওয়ার পরও যখন প্রিয় সহকর্মী ও বন্ধু ক্যামেরন ডিয়াজ ভিডিও বার্তার কোনো জবাব দিচ্ছিলেন না, তখন খটকা লাগে ড্রিউয়ের। ক্যামেরনকে ফোন করেন। কিন্তু ফোনের ওপাশ থেকে ৪৮ বছর বয়সী ক্যামেরন জানান, ‘আমি তো কোনো ভিডিও পাইনি!’ সঙ্গে সঙ্গে ড্রিউ ইনস্টাগ্রামের ইনবক্স খুলে দেখেন, তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে স্নানঘরের ভিডিওটি তিনি এক অচেনা তরুণকে পাঠিয়ে দিয়েছেন। এই তরুণ ড্রিউয়ের ইনস্টাগ্রামের এক অনুসারী ও ভক্ত। তবে এরপর কী হলো সেটা আর অনুষ্ঠানে বলেননি ‘চার্লিস অ্যাঞ্জেলস’-এর কেউই। ক্যামেরন শুধু বলেছেন, ‘সাত মিনিট লম্বা ভিডিও ছিল ওটা। ওই ছেলের তো পোয়াবারো!’ যদিও ক্যামেরনকে শুধরে দিয়ে ড্রিউ বলেন, ‘আমি অতটাও বোকা নই যে আপত্তিকর কিছু এভাবেই ভিডিও করে পাঠিয়ে দেব। ওটায় আসলে তেমন কিছু ছিল না।’

default-image
ফোনের ওপাশ থেকে ৪৮ বছর বয়সী ক্যামেরন জানান, ‘আমি তো কোনো ভিডিও পাইনি!’ সঙ্গে সঙ্গে ড্রিউ ইনস্টাগ্রামের ইনবক্স খুলে দেখেন, তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে স্নানঘরের ভিডিওটি তিনি এক অচেনা তরুণকে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ড্রিউ ব্যারিমোরের স্বনামে তৈরি টক শো দেখা যাবে তাঁর ‘দ্য ড্রিউ ব্যারিমোর শো’ নামের ওয়েবসাইট ও ইউটিউব চ্যানেলে। অনুষ্ঠানের প্রতিটি পর্বে ড্রিউ তাঁর জনপ্রিয় সহশিল্পীদের নিয়ে আসবেন, আর আড্ডা দেবেন অনেক অজানা বিষয় নিয়ে।

মন্তব্য পড়ুন 0