এলিজাবেথ টেলরের ৯০তম জন্মদিন (৮৯তম জন্মবার্ষিকী) আজ
এলিজাবেথ টেলরের ৯০তম জন্মদিন (৮৯তম জন্মবার্ষিকী) আজকোলাজ ছবি

যে তারকাদের হাত ধরে হলিউডে নেমেছে স্বর্ণযুগ, তাঁদের অন্যতম এলিজাবেথ টেলর। আধুনিক হলিউড তারকাদের অনেক প্রথার সূত্রপাত ঘটেছে তাঁর হাত ধরে। তিনি সর্বকালের সেরা ফ্যাশন আইকনদের একজন। আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউটের তালিকায় হলিউডের সর্বকালের সেরা নারী কিংবদন্তিদের মধ্যে ছয়জনের পরেই তাঁর নাম।

এলিজাবেথ টেলরের ৯০তম জন্মদিন (৮৯তম জন্মবার্ষিকী) আজ। জন্মেছেন ১৯৩২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি, ইংল্যান্ডে। তাঁর শিরদাঁড়ার হাড় সোজা নয়, অনেকটা ইংরেজি বর্ণমালার ‘এস’ আকৃতির মতো। ১৯৪৪ সালে ‘ন্যাশনাল ভেলভেট’ ছবির শুটিংয়ের সময় সেই বাঁকা হাড়ও ভেঙে ফেললেন। স্কিন ক্যানসার, ব্রেন টিউমার, হার্ট ফেইলিউর—সবকিছুর সঙ্গে লড়ে, ক্লান্ত হয়ে ২০১১ সালের ২৩ মার্চ ৭৯ বছর বয়সে চার সন্তান রেখে মারা যান তিনি।

default-image

তাঁর অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ‘ফাদার অব দ্য ব্রাইড’, ‘আ প্লেস ইন দ্য সান’, ‘জায়ান্ট’, ‘সাডেনলি লাস্ট সামার’, ‘বাটারফিল্ড ৮’, ‘দ্য ভিসিপিস’, ‘হুজ অ্যাফ্রেড অব দ্য ভার্জিনিয়া উলফস’ উল্লেখযোগ্য। তবে বড় পর্দায় তিনি অমরত্ব পেয়েছেন ‘ক্লিওপেট্রা’ হয়ে। জন্মদিনে এই তারকাকে নিয়ে থাকল কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য।

বিজ্ঞাপন

মাত্র ১০ বছর বয়সে ‘দেয়ারস ওয়ান বর্ন এভরি মিনিট’ ছবি দিয়ে আত্মপ্রকাশ করেন টেলর। প্রথম জনপ্রিয়তা আসে ১৯৪৪ সালে—ন্যাশনাল ভেলভেট ছবিতে অভিনয় করে।

default-image

১৮ বছর বয়সে প্রথম বিয়ে করেন এলিজাবেথ। তাঁর প্রথম স্বামী ছিলেন বিখ্যাত হোটেল ব্যবসায়ী পরিবারের সন্তান নিকি হিলটন জুনিয়র। তাঁদের পারিবারিক ব্যবসা ছিল হিলটন গ্রুপ অব হোটেলস। এলিজাবেথ ১৯৫০ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত সাতজনকে আটবার বিয়ে করেছেন। রিচার্ড বার্টনকে ১৯৬৪ সালে বিয়ে করে ১০ বছর পর ১৯৭৪ সালে তাঁরা আলাদা হয়ে যান। পরের বছরই আবার বিয়ে করেন। বছর না গড়াতেই নিজের ভুল বুঝতে পেরে বিচ্ছেদপত্র পাঠিয়ে দেন।

default-image

আটবার বিয়ে থেকে মোট চারজন সন্তানের মা হয়েছিলেন এলিজাবেথ। মাইকেল ওয়াইল্ডিং ও এলিজাবেথের দুই ছেলে। মাইকেল জুনিয়র এবং ক্রিস্টেফার এডওয়ার্ড। মাইক টডের আর তাঁর কন্যা লিজার। রিচার্ড বার্টন ও এলিজাবেথ টেলরের কন্যার নাম মারিয়া বার্টন।

তাঁর প্রথম স্বামী ছিলেন বিখ্যাত হোটেল ব্যবসায়ী পরিবারের সন্তান নিকি হিলটন জুনিয়র। তাঁদের পারিবারিক ব্যবসা ছিল হিলটন গ্রুপ অব হোটেলস। এলিজাবেথ ১৯৫০ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত সাতজনকে আটবার বিয়ে করেছেন।
default-image

টেলরের ক্যারিয়ারের মাইলফলক হয়ে আছে ‘ক্লিওপেট্রা’। যশ, খ্যাতি, অর্থ—এই ছবি তাঁকে দিয়েছিল সবকিছুই। এই ছবির জন্য তিনি ওই সময় ১০ লাখ মার্কিন ডলার পারিশ্রমিক নিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়েন। তবে ছবি মুক্তির পর সমালোচকেরা বলেছেন, এই অভিনয়ের কোনো আর্থিক বিনিময় হয় না।

default-image

পাঁচবার অস্কারে মনোনীত হয়ে জিতেছেন দুবার। ‘হুজ অ্যাফ্রেড অব ভার্জিনিয়া উলফ’ ও ‘বাটারফিল্ড ৮’ ছবিতে অভিনয় তাঁকে এনে দিয়েছে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে অস্কারের স্বীকৃতি।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি হীরার মধ্যে বেশ কয়েকটি ছিল টেলরের ব্যক্তিগত সংগ্রহশালায়। আর মৃত্যুর পর সেসব হীরার গয়না বিক্রি হয়েছে রেকর্ড পরিমাণ দামে, প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকায়
default-image

সুগন্ধি খুব ভালোবাসতেন তিনি। নিজেও বানিয়েছিলেন একটি সুগন্ধি। ভক্তরা সেই পারফিউমের নাম দিয়েছিলেন ‘ভায়োলেট আইজ’। হীরার অলংকারের প্রতি তীব্র আকর্ষণ ছিল তাঁর। ২০০২ সালে নিজের সংগ্রহ করা অলংকার নিয়ে বইও প্রকাশ করেন। নাম ‘মাই লাভ অ্যাফেয়ার উইথ জুয়েলারি’।

বিজ্ঞাপন
তাঁকে ‘লিজ’ বলা হলেও তিনি ব্যক্তিগতভাবে এই ডাক পছন্দ করতেন না। তাঁর মনে হতো, ‘লিজ’ ডাকটা সাপের ‘হিশশ’-এর মতো শোনায়!
default-image

বিশ্বের সবচেয়ে দামি হীরার মধ্যে বেশ কয়েকটি ছিল টেলরের ব্যক্তিগত সংগ্রহশালায়। আর মৃত্যুর পর সেসব হীরার গয়না বিক্রি হয়েছে রেকর্ড পরিমাণ দামে, প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকায়।

default-image

৬৭ বছর বয়সে এলিজাবেথ টেলর সম্মানিত হন ‘ডেম কমান্ডার অব দ্য অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ার’। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তাঁকে সম্মানিত করেন।

default-image

তাঁকে ‘লিজ’ বলা হলেও তিনি ব্যক্তিগতভাবে এই ডাক পছন্দ করতেন না। তাঁর মনে হতো, ‘লিজ’ ডাকটা সাপের ‘হিশশ’-এর মতো শোনায়!

হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন