default-image

বয়স তাঁর ২৩ ছুঁই ছুঁই করছে। এর মধ্যে মার্ভেল সিনেমাটিক ইউনিভার্সের ছবি তাঁকে যে জনপ্রিয়তা দিয়েছে, বয়স সেই জনপ্রিয়তার ওজনের তুলনায় খুবই ছোট। ক্যাপ্টেন আমেরিকা: সিভিল ওয়্যার (২০১৬), স্পাইডারম্যান: হোমকামিং (২০১৭), এভেঞ্জার্স: ইনিফিনিটি ওয়্যার (২০১৮), এভাঞ্জার্স: এন্ডগেম (২০১৯) ছবিগুলোর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আরও একটা বড় নাম। সেটি স্পাইডার ম্যান: ফার ফ্রম হোম। এ তো গেল ক্যারিয়ারের কথা।

কিন্তু এই লেখার সূত্রপাত ক্যারিয়ার নিয়ে আলাপের জন্য না। বরং মাত্র ৭ বছর বয়সে ডিসলেক্সিয়ায় আক্রান্ত ইংরেজ অভিনেতা ও নৃত্যশিল্পী টম হল্যান্ডের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। বড় পর্দায় স্পাইডার ম্যান অর্থাৎ পিটার পার্কারের প্রেমিকা হলেন তাঁর সহপাঠী ও বন্ধু মিশেল জোনস। আর 'স্পাইডার ম্যান: ফার ফ্রম হোম' ছবিতে স্পাইডারম্যান আর মিশেল জোনস রূপে প্রেম করবেন টম হল্যান্ড আর জেনদায়া। ২২ বছর বয়সী জেনদায়া একজন মার্কিন অভিনেত্রী ও গায়িকা। গুজব রটেছে, পর্দায় প্রেমের অভিনয় করতে করতে কখন যে সত্যি সত্যি একে অপরের প্রেমে পড়েছেন তা নাকি টেরই পাননি। ১ জুলাই টমের জন্মদিনে জেনদায়া তাঁর আর টমের একটা ছবি শেয়ার করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালে সেই গুজব আরও জোরালো হয়।

সম্প্রতি এই বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হল টম হল্যান্ডকে। আর সেখানেই সমাপ্তি ঘটল বাতাসে ভাসমান সমস্ত গুঞ্জনের। লন্ডন ব্রিট স্কুলের এই স্নাতক সাফ জানিয়ে দিলেন, জেনদায়ার সাথে প্রেম করছেন না তিনি। তবে এও বললেন, তাঁর কাছে সম্পর্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি মোটেই ক্ষণস্থায়ী সম্পর্কে বিশ্বাস করেন না। সেটা তাঁর জীবনের দর্শন নয়। অন্যদিকে ২০১৭ সালে তাঁদের প্রথম ছবি স্পাইডারম্যান: হোমকামিং মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই জেনদায়া একই কথা বলছেন। প্রেম আড়াল করার সব থেকে পরিচিত বাক্য, 'আমরা শুধুই বন্ধু'।

default-image

তারকারা প্রেম করলেও খবর হয়, না করলেও খবর হয়। তবে সব থেকে বেশি খবরের শিরোনাম হন, যদি প্রেম করছেন নাকি করছেন না, এরকম একটি মাঝামাঝি অবস্থান তৈরি হয়। তখন রহস্য থেকে যায়, অনুসন্ধনী প্রতিবেদনের সুযোগ থাকে। আর্সেনাল ফুটবল দলের ভক্ত টম হল্যান্ড আর জেনদায়াও সেরকম একটি পরিস্থিতি তৈরি করে মুখে কুলুপ এঁটে বসেছেন। অনেকে আবার বলছেন, এ সবই সিনেমার প্রচারণার অংশ। কে জানে, তাঁদের জীবনও তো সিনেমাই।

যা হোক, বাস্তবে এই জুটি প্রেম করুক বা না করুক বড় পর্দায় এই জুটিকে চুটিয়ে প্রেম করতে দেখা যাবে আর মাত্র কয়েকদিন পরেই। কারণ ৫ জুলাই বড় পর্দায় মুক্তি পাবে অনেক আকাঙ্ক্ষিত ছবি স্পাইডার ম্যান: ফার ফ্রম হোম। টম হল্যান্ডের সর্বশেষ ছবি এভাঞ্জার্স: এন্ডগেম তো বক্স অফিসে ইতিহাস সৃষ্টি করে এখন পর্যন্ত পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অর্থ উপার্জনকারী ছবি। দেখা যাক বক্স অফিসে কত বড় অঙ্ক তুলে আনতে পারে প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকা খরচ করে বানানো স্পাইডার ম্যান: ফার ফ্রম হোম।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0