default-image

নাটালি পোর্টম্যান চান না সন্তানেরা তাঁর সিনেমা দেখুক। তাঁকে দেখা গেছে স্টার ওয়ার্স সিরিজের বেশ কয়েকটি সিনেমায়। থর, থর: দ্য ডার্ক ওয়ার্ল্ড, অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম সিনেমাগুলোতেও সদর্পে দেখা মেলে ৩৯ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীর। তিনি অস্কারজয়ী সফল অভিনেত্রী, প্রযোজক ও সমাজসেবী হলেও নাটালির মতে, তাঁর সবচেয়ে বড় পরিচয় তিনি একজন মা। আর নাটালি চান না এই সব সুপারহিরো সিনেমা দেখে তাঁর সন্তানেরা তাঁকে ‘মা’-এর চেয়ে বেশি কিছু ভাবুক।

বিজ্ঞাপন

নাটালি পোর্টম্যান ও তাঁর জীবনসঙ্গী ফরাসি কোরিওগ্রাফার বেঞ্জামিন মিলপিয়ের সংসারে আছে দুই সন্তান। এক ছেলে আলিফ পোর্টম্যান মিলপিয়ে ও এক মেয়ে আমালিয়া মিলপিয়ে। আলিফের বয়স ৯ আর আমালিয়ার ৩। যুক্তরাজ্যের সাময়িকী ইনসাইডারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নাটালি বলেন, ‘সুপারহিরো নাটালি আর মা নাটালি—সম্পূর্ণ আলাদা মানুষ। ওরা আগে এই দুইয়ের পার্থক্য বুঝতে শিখুক। না হলে শুধু শুধু কনফিউশন তৈরি হবে। অবশ্য ছেলেটা একটু বড় হয়েছে। ও সিনেমার মানে বোঝে। স্টার ওয়ার্স সিরিজের ভক্ত। তবে আমার অভিনীত ছবিগুলো দেখতে দিইনি।’

default-image

নানা গুণের অধিকারী নাটালির নামডাক আছে সমাজসেবক হিসেবেও। তাই নাটালি নিজের জীবন কেবল নিজের জন্য ব্যয় না করে অন্যের জন্যও বাঁচতে বলেছেন। এই হার্ভার্ড গ্র্যাজুয়েট বলেছেন, ‘মানুষ যখন অন্যের পাশে দাঁড়ায়, তখন সে আসলে নিজের পাশেই দাঁড়ায়। তাই নিজের জন্যই আমাদের অন্যের পাশে দাঁড়ানো উচিত।’

মন্তব্য পড়ুন 0