চলচ্চিত্র উৎসব

টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

‘না’ বলতে হবে, বলা শিখতে হবে

নিজের পরিচালিত প্রথম ছবি ব্রুইসড নিয়ে হ্যালি অংশ নিয়েছেন টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতা বিভাগে। আর এর সূত্র ধরেই তিনি ভার্চ্যুয়ালি কথা বলেছেন উৎসবে অংশ নেওয়া গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে। সেখানেই অভিনেত্রী হিসেবে হলিউড থেকে পাওয়া জীবনের শিক্ষাগুলোর কথা সবাইকে জানালেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
default-image

এবারের টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ, এ বছরই প্রথম উৎসবে পুরুষের চেয়ে বেশি নারী নির্মাতাদের অংশগ্রহণ। সেই নির্মাতাদেরই একজন হ্যালি বেরি। নিজের পরিচালিত প্রথম ছবি ব্রুইসড নিয়ে হ্যালি অংশ নিয়েছেন টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রতিযোগিতা বিভাগে। আর এর সূত্র ধরেই তিনি ভার্চ্যুয়ালি কথা বলেছেন উৎসবে অংশ নেওয়া গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে। সেখানেই অভিনেত্রী হিসেবে হলিউড থেকে পাওয়া জীবনের শিক্ষাগুলোর কথা সবাইকে জানালেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

হ্যালি বেরি হলেন সেরা অভিনেত্রী হিসেবে অস্কার জেতা প্রথম ও একমাত্র কৃষ্ণাঙ্গ নারী। তাঁর পরিচালিত প্রথম ছবি ব্রুইসড নিয়ে টরন্টো চলচ্চিত্র উৎসবে এরই মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, আগামী অস্কার আসরে সেরা চলচ্চিত্র ও সেরা পরিচালকের দৌড়ে উঠে আসতে পারে ব্রুইসড ও হ্যালি বেরির নাম। আর যদি অস্কার–দৌড়ে কোনোভাবে জিতে যান ৫৪ বছর বয়সী হ্যালি, তাহলে তৈরি হবে আরেক ইতিহাস। কারণ, ৯২ বছরের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সেরা নির্মাতা বিভাগে অস্কার জেতেনি কোনো কৃষ্ণাঙ্গ নারী। কিন্তু এই সুসময় একেবারেই যে সাধনা ছাড়া তাঁর জীবনে এসেছে, এমন ভাবা অমূলক। হ্যালি বেরি বলেন, ‘এ পর্যন্ত আসার সফরে অনেক শিক্ষা পেয়েছি। এর মধ্যে একটি হলো—গড়পড়তা ছাঁচে পড়ে যেয়ো না। কাজের সুযোগ পাওয়ার জন্য নিজেকে টোকেনের মতো ব্যবহার করতে যেয়ো না। “না” বলতে হবে, বলা শিখতে হবে।’ এসব কথা হ্যালি বেরি বলেছেন ১১ সেপ্টেম্বর দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে।

জীবন থেকে পাওয়া এই শিক্ষা নিয়ে হ্যালি বেরি আরও বলেন, ‘নিজেকে স্বাধীন রেখে সৃষ্টির সুখ নাও। এবং এখানেই শিল্পের শক্তি, শিল্পীর মুক্তি।’ ব্রুইসড ঘিরে আরেকটি সুখবর হলো টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব থেকেই ২ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ছবিটির প্রচারস্বত্ব কিনে নিয়েছে নেটফ্লিক্স। শিগগিরই নেটফ্লিক্সে ছবিটি দেখা যাবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন