default-image

চোখে ভারী ফ্রেমের চশমা। সাদা শার্ট। গলায় একটা চিকন চেইন। মুখে মেকআপ আছে কি না, বোঝা যায় না। এভাবেই খুব সাধারণ বেশে ঘর থেকেই দেখা দিলেন হলিউড তারকা শাইলেন উডলি। কেবল দেখাই দেননি, দিয়েছেন বড় খবরও। আর এক ধাপ এগোলেই শাইলেনের বিয়ে। বাগদান হয়ে গেছে তাঁর। হবু বর আর কেউ নন, ফুটবলার অ্যারোন রজার্স। ‘দ্য টুনাইট শো’তে জিমি ফ্যালনের জেরার মুখে বাগদানের কথা স্বীকার করেছেন তিনি।

default-image

শোয়ের প্রথমেই জিমি ফ্যালন বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই আপনার আর অ্যারোনের প্রেমের কথা শুনছিলাম। এখন শোনা যাচ্ছে, আপনারা নাকি বাগদানও সেরে ফেলেছেন। যা শুনছি, পড়ছি তা কি সত্যি?’ উত্তরে হাসতে হাসতে ২৯ বছর বয়সী ‘ডাইভারজেন্ট’খ্যাত শাইলেন বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা কিছুদিন আগে বাগদান সেরে ফেলেছি। ও কেমন ফুটবলার, তা তো জানি না। কারণ আমি এসব বুঝি না। তাঁর সঙ্গে পরিচয় হওয়ার আগে আমি কখনো ফুটবল খেলা দেখিনি। পরিচিত হওয়ার পরে দেখেছি। বুঝেছি যে একটা বল নিয়ে সবাই মারামারি করে। তবে বলে হাত লাগানো যাবে না। সত্যি কথা বলতে কী, আমি কখনো কল্পনাও করিনি যে আমি একটা মানুষকে বিয়ে করব, যে কিনা বলে লাথি মেরে পেট চালায়।’

বিজ্ঞাপন

‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ ছবিটি ব্যাপক খ্যাতি এনে দিয়েছিল শাইলেনকে। এখানে বলে রাখি, ছবিটির হিন্দি রিমেকই সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ সিনেমা ‘দিল বেচারা’। শাইলেন এই শোতে দুবার হাত তুলেছেন। তখনই হাতের অনামিকায় হিরের আংটি ঝলমল করে উঠেছে। এ নিয়ে শুরু হয়ে গেছে গবেষণাও। বলা হচ্ছে, হাতের আংটি বানানো হয়েছে বিরল ধরনের এক রকম হলদে হিরে দিয়ে। ‘রেয়ার ক্যারেট’ নামে বিশ্ববিখ্যাত হিরের ব্র্যান্ডের প্রধান নকশাকার অজয় আনন্দ অনলাইন পোর্টাল ইনসাইডারকে জানিয়েছেন, অন্তত ছয় ক্যারেটের আংটিটি চতুষ্কোণ আকৃতির, ডিজাইনটা অপূর্ব। এর দাম পাঁচ কোটি টাকার কম নয়।

default-image
হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন