default-image

২০১৩ সালে হলিউডের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক গোনা ও সর্বোচ্চ অর্থ উপার্জনকারী নারী তারকা তিনি। ২৬ বছর হেঁটেছেন হলিউডের রাস্তায়। সময়মতো হলিউডকে বিদায় বলতেও এতটুকু দ্বিধা করেননি। ভেবেছিলেন, চিরকুমারী থেকেই জীবন কাটাবেন। কিন্তু বিয়াল্লিশে এসে ঠিকই বলেছেন ‘আই ডু’। বলছি চার্লিস অ্যাঞ্জেলস, ভ্যানিলা স্কাই, দেয়ারস সামথিং আবাউট মেরি, অ্যানি শ্রেকখ্যাত ক্যামেরন ডিয়াজের কথা।

ক্যামেরনের প্রেমিক পুরুষের তালিকা ছোট নয়। প্রেম করেছেন ভিডিও প্রযোজক কার্লোস ডে লা টোর, অভিনেতা ম্যাট ডিলন, অভিনেতা-গায়ক জেয়ার্ড লেটো, গায়ক-অভিনেতা জাস্টিন টিম্বারলেক ও বেসবল খেলোয়াড় অ্যালেক্স রড্রিগেজের সঙ্গে। তবে শেষ পর্যন্ত মালা পরিয়েছেন গায়ক-গিটারবাদক বেনজি ম্যাডেনকের গলায়। বেনজি ও ক্যামেরন দম্পতির ঘরে ২০২০ এর জানুয়ারিতে জন্ম নিয়েছে কন্যাসন্তান। নতুন মাতৃত্ব, সংসার নিয়ে ভালোই সময় কাটছে ক্যামেরনের। সম্প্রতি ভোগ ম্যাগাজিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে উঠে এল নানা কথা।

২০১৮ সালে হলিউডকে বিদায় জানানো নিয়ে ক্যামেরন বলেন, ‘আমি অন্যদের মতো না যে আলোচনায় থাকার জন্য বিদায় নিচ্ছি। আবার নতুন ছবির ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় আসব। আমার মনে হয়, হলিউডকে আমার যা দেওয়ার তা দিয়েছি। হলিউড থেকেও যা পাওয়ার তা পেয়েছি। সত্যি কথা বলতে কী, হলিউড থেকে বিদায় নিয়ে আমি শান্তি পেয়েছি। সুখী হয়েছি।’
ক্যামেরন আরও বলেন, ‘মাল্টি মিলিয়ন ছবি করায় নাম আছে, খ্যাতি আছে। কিন্তু এর যে মানসিক চাপ, তা আপনার জীবন থেকে প্রশান্তি কেড়ে নেবে, স্বস্তি দেবে না। মাসের পর মাস আপনার দিনের ১২ ঘণ্টা প্রযোজক, পরিচালকেরা কিনে নিয়েছেন। আর এভাবেই আপনার বয়স বাড়তে থাকে। নিজেকে সময় দেওয়ার কোনো সময় থাকে না। এসবের মাঝে যদি এক মুহূর্ত সময় মেলে, তাহলে মনে হবে, অর্থ–নাম–খ্যাতির নামই কি জীবন? হৃদয় নীরবে চিৎকার করে জানান দেবে, না। ২৪ ঘণ্টা মিডিয়া আপনাকে চোখে চোখে রাখে। এই জীবনকে বিদায় বলে আমি নতুন জীবনে শান্তি পেয়েছি।’ সূত্র: বিবিসি

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0